সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের অভিযোগ সিপিএম সাংসদের বিরুদ্ধে



নিউজ ডেস্ক:: ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী বা সিপিএম) থেকে বহিষ্কারের পর আবারও নতুন করে বিতর্কে জড়ালেন ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়। এক তরুণী অভিযোগ করেছেন বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ঋতব্রত তার সঙ্গে সহবাস করেছেন। নম্রতা দত্ত নামে ওই তরুণী এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে জানা গেছে। এরপর ঋতব্রত বিষয়টি মিটমাট করতে ওই তরুণীকে বিশাল অঙ্কের টাকা দিতে চায় বলে ওই তরুণী অভিযোগ করেছেন।
এদিকে নম্রতা তার এবং ঋতব্রতের কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে পোস্ট করেছেন। সেখানে তিনি ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়ের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।
নম্রতার অভিযোগ, ‘বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ঋতব্রত তাকে ফ্ল্যাটে নিয়ে যায়। এবং সেখানে সে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করে। এছাড়া চলতি বছরের ১৫ অক্টোবর তাকে বিয়ে করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ঋতব্রত।’ এই তরুণী দাবি করেছেন তার সঙ্গে মোট ১৯ বার শারীরিক সম্পর্ক করেছেন ঋতব্রত।

এদিকে রাজ্যসভার সাংসদ ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় এ পুরো ঘটনা অস্বীকার করেছেন। তিনি ৬ অক্টোবর নম্রতা দত্তের বিরুদ্ধে গড়ফা থানায় এ বিষয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ঋতব্রত অভিযোগ করেছেন, নম্রতা প্রায়ই তার কাছ থেকে টাকা চাইতো। ওই তরুণী অসুস্থ বললে চিকিৎসার জন্য ২ লাখ ২৫ হাজার টাকা দেন ঋতব্রত। এরপর থেকে টাকা চাওয়ার পরিমান আরও বেড়ে যায় বলে অভিযোগ করেন এই নেতা।
এদিকে নম্রতার দাবি তার সঙ্গে ঋতব্রতের শারীরিক সম্পর্ক হয়েছে তা যাতে কেউ না জানতে পারে সেজন্য তার মুখ বন্ধ করার জন্য ঋতব্রত তার একাউন্টে আড়াই লাখ টাকা পাঠায়। এছাড়া নম্রতাকে বিভিন্ন সময় নানা হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে নম্রতা তার অভিযোগে জানিয়েছেন। আর সে কারণেই নম্রতা সামাজিক মাধ্যমে তার এবং ঋতব্রতের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ কয়েকটি ছবি সবার সামনে এনে সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন ও সব জানিয়েছেন।
সূত্র: দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত