শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বিশ্বের ৬০ অধ্যাপকের বিরূদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ



আন্তর্জাতিক ডেস্ক::বিশ্বের নামী দামী ৬০ জন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোহ উঠেছে। শিক্ষার্থীদের ওপর যৌন নির্যাতন চালায় এমন শিক্ষকদের একটা নামের তালিকা প্রকাশ করেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী এক বাঙালী আইনজীবী।

তিনি এটা ফেসবুকে প্রকাশ করার পর অন্য সব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও সেটি ভাইরাল হয়ে গেছে। তার করা এই তালিকায় যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ভারত, অস্ট্রেলিয়ার অনেক নামীদামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের নাম রয়েছে।

এই তালিকা তৈরি করা, সেই রায়া সরকার ফেসবুকে নিজেকে একজন আইনজীবী হিসেবে ব্যাখ্যা করেছেন। তিনি কারাবন্দীদের অধিকার, প্রজনন অধিকার এবং জাতপাতের বিরুদ্ধে আইনি লড়াইয়ে আগ্রহী। যৌন নির্যাতনকারী শিক্ষকদের নামের তালিকা প্রকাশ করার আগে নিজের ফেসবুক ওয়ালে তিনি পোস্ট করেন, ‘আপনারা যদি এমন কোনো শিক্ষক সম্পর্কে জানেন যারা শিক্ষার্থীদের ওপর যৌন নির্যাতন চালিয়েছে, তাদের নামধাম আমাকে পাঠালে আমি সেটা তালিকায় যোগ করবো।’ এই পোস্ট দেয়ার পরপরই তালিকায় একের পর এক নাম যোগ হতে থাকে।

এই তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২ জন অধ্যাপকের নাম রয়েছে। দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক রয়েছেন ৯ জন। তালিকায় অভিযুক্ত শিক্ষকদের মধ্যে একটা বড় অংশ বাঙালী। এসব অভিযোগের ব্যাপারে তালিকায় থাকা শিক্ষকদের কোনো বক্তব্য তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। তবে ফেসবুকে এর পক্ষে বিপক্ষে নানা মন্তব্য পোস্ট হতে থাকে। কোনো ধরনের ব্যাখ্যা বা ঘটনার পূর্বাপর বর্ণনা ছাড়াই যেভাবে এই নামের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে, এর বিরুদ্ধে ভারতের কিছু নারীবাদী ব্যক্তিত্ব বক্তব্য দিয়েছেন।

এক যৌথ বিবৃতিতে আয়েশা কিদওয়াই, কবিতা কৃষনান, ভৃন্দা গ্রোভারসহ ক’জন শীর্ষস্থানীয় নারী অধিকার আন্দোলনকর্মী বলছেন, তালিকায় এমন দু’একজন রয়েছেন যাদের বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ এর আগে প্রমাণিত হয়েছে। কিন্তু তাদের নামের পাশে এমন আরো কিছু নাম রয়েছে যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ এখনো প্রমাণিত হয়নি। কোনো ধরনের জবাবদিহিতা ছাড়াই অভিযোগকারীর পরিচয় গোপন রেখে কারো নাম প্রকাশ করার বিষয়টি আশঙ্কাজনক বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করেন তারা। বিবিসি

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত