শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

জামালগঞ্জে শনি রউয়া বিলের জলমহালের উন্নয়ন প্রকল্প হাওয়া



সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি::সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার বেহেলী ইউনিয়নে শনি রউয়া বিলের জলমহাল ব্যবস্থাপনা নীতি মালা ২০০৯ অনুযায়ী উন্নয়ন প্রকল্প ছক ইজারা চুক্তির এবং অঙ্গিকার নামা মোতাবেক জলমহাল উন্নয়ন কার্যক্রম হাওয়া।
সরেজমিনে খোজ নিয়ে জানা যায়, শনি রউয়া বিলটি গত প্রায় ৪বছর আগে ইসলামপুর মৎস্যজীবি সমিতি উন্নয়ন প্রকল্পের আওয়তায় লিজ এনে আজ পযন্ত কোন উন্নয়ন কাজ না করায় জেলা প্রসাশকের নির্দেশে গত ১৮ অক্টোবর জামালগঞ্জ ইউনিয়ন ও সাচনা বাজার ভুমি অফিস যৌত ভাবে সরেজমিনে তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য বলা হলে প্রতিবেদনে বলেন। অত্রাফিসের আওয়াতাধীন শনি রউয়া জলমহালটি । সরেজমিনে দেখা যায় ইজারা প্রাপ্ত সমিতি প্রকল্প ছক ইজারার চুক্তির শর্ত এবং অঙ্গিকার নামা মোতাবেক জলমহালটিতে কোন খনন কাজ করা হয়নি, দেখতে পাওয়া যায়নি। জলমহালের পাড়ে সামাজিক বনায়ন করার কথা থাকলেও এরকম কোন বনায়ন দেখা যায় নি। জলমহালের তীর বর্তী বদরপুর গ্রামের মোঃ জয়নাল আবেদীন পিং আব্দুল মুন্নাফ এর সাথে আলাপ কালে জানা যায় ইজারা প্রাপ্ত সমিতি অত্র জলমহালে কোন প্রকার উন্নয়ন কার্যক্রম গ্রহন করেনি। বিলের তীরবর্তি রাধা নগর গ্রামের মৎস্য জীবি ,দুলাল মিয়া,জালাল উদ্দিন,রহিম উদ্দিন,হারিছ উদ্দিন, হাবলু মিয়া,আয়না মিয়া,জুলহাস, আশরাফ,ইসলাম উদ্দিন,আরো অনেক মৎস্য জীবি বলেন, ইজারাদার সমিতির সভাপতি রইছ উদ্দিন আমাদের বিলের সিমানার বাহিরে ও মাছ ত দুরের কথা বিলের আশপাশ দিয়ে নৌকা বেয়ে জীবিকা নিবাহের জন্য চলাচলে বাধা নিষেধ ও ভয়ভীতি প্রদশন করে। জানতে পারলাম উন্নয়ন কার্যক্রমে বিলের ইজারা দার বিল খনন ও আশপাশে সামাজিক বনায়ন কিছুই করে নাই। আমরারে সাংবাদিক ভাই আপনে বলে যান বিলের সিমানার বাইরে মাছ ধরার জন্য দিত। রাধা নগর গ্রামের গন্যমান্য ব্যক্তি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমার জানা মতে উন্নয়ন কার্যক্রমে ইজারা কৃত বিল বিলের উন্নয়ন কিছুই হয় নাই। আমার জানা মতে সহকারি কমিশনার ভুমি স্বাক্ষরিত একটি তদন্ত প্রতিবেদন দিয়েছেন।##

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত