রবিবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

আলোচনায় নারায়ণগঞ্জের রাজকীয় এক বিয়ে!



হাসান শাফিঈ, নারায়ণগঞ্জ থেকে ফিরে: নারায়ণগঞ্জে এ মুহূর্তে টক অব দ্য টাউন একটি বিয়ে। পাত্র ওসমান ইমতিনান জোহা অয়ন। পেশায় আইনজীবী। পাত্রী ইরফানা আহমেদ রাশমী। একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে আর্টিটেকচার বিষয়ের শিক্ষার্থী। দু’জনই নারায়ণগঞ্জের রাজনীতিতে আলোচিত দুই রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান।

পাত্রের বাবা শামীম ওসমান। যিনি তার রাজনৈতিক আচার-আচরণে বহুল আলোচিত-সমালোচিত ব্যক্তিত্ব। কনের বাবা ফয়েজ উদ্দিন আহমেদ লাভলুও নারায়ণগঞ্জের রাজনীতিতে আলোচিত। জাতীয় পার্টির প্রভাবশালী নেতা তিনি। সবমিলিয়ে অয়ন-রাশমীর বিয়ে নিয়ে সরগরম নারায়ণগঞ্জের রাজনীতি।

সংশ্লিষ্টরা জানান, পাত্র ও পাত্রী পক্ষে আলাদা আলাদা দু’দফা বিয়ের এনগেজমেন্ট এরই মধ্যে সম্পন্ন হলেও মূল বিয়ের অনুষ্ঠান হবে আজ শুক্রবার। বিয়ের কাবিননামায় কত টাকা দেনমোহর নির্ধারণ করা হয়েছে, কনে ও পাত্র দু’পক্ষ থেকেই এ তথ্য গোপন রাখা হয়েছে।

কনে পক্ষের তরফে নারায়ণগঞ্জের ওসমানী স্টেডিয়ামে হবে বিয়ে ও মেজবান অনুষ্ঠান। এতে আমন্ত্রিত হয়েছেন ১০ হাজার অতিথি। যদিও কনে পক্ষ থেকে ৩ হাজার অতিথিকে আমন্ত্রণ জানানোর তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। কনে পক্ষ থেকে বিতরণ করা হয়েছে তিন ডিজাইনের বিয়ের কার্ড।

বিয়ে উপলক্ষে গত তিন সপ্তাহ ধরে মাসদাইর বড় কবরস্থান থেকে নারায়ণগঞ্জের গুলশান পর্যন্ত প্রায় এক কিলোমিটার রাস্তা আলোকসজ্জায় সজ্জিত রয়েছে। মূল রাস্তায় স্থাপন করা হয়েছে বিশাল আকারের তোরণ।

অন্যদিকে, ওসমান পরিবারের পক্ষে নারায়ণগঞ্জবাসীদের নিয়ে বৌভাত অনুষ্ঠান হবে ২২শে ডিসেম্বর। আর রাজনৈতিক-ব্যবসায়ী ও শুভানুধ্যায়ীদের ঢাকার এমপি হোস্টেলে বিয়ে-উত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে ২৫শে ডিসেম্বর।

এ দুই অনুষ্ঠানে অতিথিদের আমন্ত্রণ জানাতে ওসমান পরিবারের পক্ষ থেকেও একাধিক ডিজাইনের কার্ড তৈরি করা হয়েছে।

এদিকে, ছেলে অয়ন ওসমানের বিয়ে অনুষ্ঠান ঘিরে এক অন্যরকম শামীম ওসমানের দেখা পেয়েছেন নারায়ণগঞ্জবাসী। একমাত্র পুত্র সন্তানের বিয়েতে যারপরনাই আনন্দিত বহুল আলোচিত এ পলিটিশিয়ান। নেচে গেয়ে, হোলি খেলে সেই আনন্দের বহিঃপ্রকাশও ঘটিয়েছেন তিনি।

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, সবুজ প্রকৃতি ঘেরা একটি খোলা মাঠে বিভিন্ন বয়সী নারী-পুরুষ। যাদের পরনে সাদা পাঞ্জাবি ও পায়জামা। শামীম ওসমানের হাতে রঙভর্তি একটি বালতি। বিশেষ কাউকে রঙে ভাসিয়ে দিতে তিনি শিকারির মতো ঘুরে ফিরছেন!

কিন্তু শিকার খুঁজে পান না তিনি। একপর্যায়ে বালতি ফেলে মিউজিকের তালে কোমর দুলিয়ে নেচে ওঠেন তিনি। তার দেখাদেখি, খোলা মাঠে রঙমাখা একদল নারী তাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে নাচতে শুরু করেন।

শামীম ওসমানও কম যান না। তিনি সে চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে ‘লুঙ্গি ড্যান্স, লুঙ্গি ড্যান্স’ গানের তালে বেসুমার নেচে চলেন। সূত্র: মানবজমিন।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত