বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

জগন্নাথপুরে ২০ বছর ধরে পরিত্যক্ত ব্রিজ



জগন্নাথপুর সংবাদদাতা ::জগন্নাথপুরের পৌর শহরের ৯নং ওয়ার্ডের পশ্চিম ভবানীপুর এলাকায় খালের উপর ব্রিজ নির্মানের ২০বছর পেরিয়ে গেলেও দু’পাশে কোন রাস্তা না থাকায় পরিত্যক্ত অবস্থায় দাড়িয়ে রয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, প্রায় ২৫ মিটার দৈর্ঘ্য এ ব্রিজটি ১৯৯৮ সালে নির্মাণ করা হয়েছে। তবে কোন সংস্থা কর্তৃক ব্রিজটির নির্মাণ কাজ করা হয়েছে তা খুঁজে পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে এলজিইডি ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসে খোঁজ নিয়েও ব্রিজটির নির্মাণকারী প্রতিষ্টানের কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। ব্রিজটি নির্মাণের পর থেকেই স্থানীয় লোকজনদের যাতায়াতে কাজে আসেনি। এলাকাবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে তৎকালিন জগন্নাথপুর ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে নির্মিত ব্রিজের দু’পাশের রাস্তাটি পরিবর্তন করে পশ্চিম ভবানীপুর ও পূর্ব ভবানীপুর এলাকাবাসী নলুয়ার হাওরে যাতায়াতের সুবিধার্থে ব্রিজ থেকে প্রায় ৩শ ফুট পূর্ব দিকে নতুন করে পশ্চিম ভবানীপুর সড়ক নির্মান হওয়ায় তখন থেকেই ব্রিজটি পরিত্যক্ত হয়ে পড়ে। কিন্তু নতুন করে নির্মিত সড়কটিতে ঐ স্থানে বাশেঁর ব্রিজ নির্মাণ করে সড়ক দিয়ে লোকজন যাতায়াত করে আসছেন।
জগন্নাথপুর পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের পশ্চিম ভবানীপুর এলাকায় সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, পশ্চিম ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠের পূর্ব পাশে রাস্তা বিহীন দন্ডায়মান ব্রিজটি জনসাধারণের কাজে আসছেনা। স্থানীয় লোকজনদের সাথে ব্রিজটি নির্মিত হওয়ার কারণ জানতে চাইলে এলাকার লোকজন জানান, নলুয়ার হাওরে যাতায়াতের সুবিধার্থে এলাকাবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে তৎকালিন জগন্নাথপুর ইউনিয়ন পরিষদ বর্তমান পৌরসভা কর্তৃক ব্রিজটি নির্মানের ব্যবস্থা করেন। ব্রিজটি নির্মিত হওয়ার পর এলাকাবাসী আনন্দিত হলেও কখনও ব্রিজ দিয়ে পারাপার হননি। কারণ ব্রিজের পূর্ব দিকে রাস্তা নির্মিত হওয়ায় ব্রিজটি যাতায়াতের অনুপযোগী হয়ে পড়ে।
এলাকাবাসী আরো জানান, মাঠের উপর রাস্তাবিহীন দন্ডায়মান ব্রিজটি এলাকার সৌন্দর্য্য বর্ধনে বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কর্তৃক ব্রিজটি অপসারণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান।
৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলার দ্বিপক গোপ জানান, ব্রিজটি কত সালে নির্মিত হয়েছিল তা আমার জানা নেই। তবে ধারণা করা হচ্ছে বিগত ২০ বছর আগে নির্মান করা হয়েছে। ব্রিজটি অপসারণ হওয়া প্রয়োজন। জগন্নাথপুর উপজেলা এলজিইডি অফিস সূত্র জানায়, ব্রিজটির নির্মাণকারী প্রতিষ্টানের কোন তথ্য এখানে নেই। তবে কবে কখন এ ব্রিজটি নির্মাণ কাজ হয়েছে তার খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত