রবিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ট্রাম্পের ভুল শুধরে ফেরত পাঠিয়েছেন স্কুলশিক্ষক



ডোনাল্ড ট্রাম্পের একটি চিঠির ভুল শুধরে দিয়ে সেটি তার কাছে ফেরত পাঠিয়েছেন আটলান্টার অবসরপ্রাপ্ত এক স্কুলশিক্ষক, যাতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ভুল থেকে শিখতে পারেন। ইভোন্নি ম্যাসন নামে ওই নারী শিক্ষক এক চিঠিতে ফ্লোরিডার পার্কল্যান্ডে গুলি চালিয়ে বেশ কয়েকজনকে হত্যার ঘটনার পর হতাহতদের পরিবারের সঙ্গে তাকে সাক্ষাৎ করার অনুরোধ জানিয়ে এবং স্কুলের নিরাপত্তার বিষয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কাছে জানতে চেয়েছিলেন। এই শিক্ষিকার এই কাজ ব্যাপক মানুষের মনোযোগ কেড়েছে। বিবিসি গতকাল সোমবার এ খবর জানায়।

তার চিঠির জবাবে গত ৩ মে ট্রাম্প যে চিঠি পাঠিয়েছেন, তা ‘ব্যাকরণগত ভুলে ভরা’ বলে ইংরেজির এই শিক্ষক জানিয়েছেন।

তিনি গ্রিনভিল নিউজকে বলেন, সরকারের শীর্ষ পর্যায় থেকে যখন চিঠি আসে, তখন সেটা অন্তত ‘ভালোভাবে শুদ্ধ’ হবে বলে আপনি আশা করবেন। হোয়াইট হাউসের প্যাডে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের স্বাক্ষরসহ ওই চিঠির একটি ছবি পোস্ট করেছেন, যার ওপরই ব্যাকরণগত ভুলগুলো সংশোধন করে দিয়েছেন তিনি। চিঠির উপর দিকে ম্যাসন লিখেছেন, আপনারা সবাই ‘গ্র্যামার স্টাইল চেক’ করেছিলেন তো? ‘নেশন’ ও ‘স্টেট’ শব্দ দুটির প্রথম অক্ষর বড় হাতের লেখার ভুল ধরিয়ে দেন তিনি। ওই শব্দ দুটিতে গোল দাগ দিয়ে তা কেন ভুল, তার ব্যাখ্যাও দিয়েছেন তিনি।

আরেকটি বাক্যে মেশিনগানের যন্ত্রাংশ নিষিদ্ধ করতে বিধি (রুল) প্রণয়নের যে কথা ট্রাম্প লিখেছেন, তাকে অস্পষ্ট বলে চিহ্নিত করা হয়। রুল শব্দটি ব্যাখ্যার আহ্বান জানিয়ে ম্যাসন বলেন, ‘বাজে লেখা আমি সহ্যই করতে পারি না। ওই শিক্ষিকা জানান, শুধু কতগুলো কার্যক্রমের তালিকা দেওয়া হয়েছে চিঠিতে, যা তার উদ্বেগ প্রশমনে ব্যর্থ হয়েছে। হোয়াইট হাউসে ফেরত পাঠানো ওই চিঠির ছবি তিনি গত সপ্তাহে ফেসবুকে পোস্ট করার পর তা শত শত মানুষের মনোযোগ কেড়েছে। অনেকেই এই শিক্ষকের প্রশংসা করলেও কেউ কেউ প্রেসিডেন্টকে নিয়ে তামাশা করার জন্য তার সমালোচনা করছেন।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত