মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

কুলাউড়ায় বন্ধুকযুদ্ধে ডাকাত নিহত, আহত ৪



নিজস্ব রিপোর্টার: মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলায় পুলিশের সাথে বন্ধুক যুদ্ধে ডাকাত স¤্রাট ইসলাম ওরফে কামরুল নিহত হয়েছে। এ সময় চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে ১টি এলজি বন্দুক, ৫ রাউন্ড গুলি ও ৫টি রামদা উদ্বার করেছে পুলিশ।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার ভোর রাতে কুলাউড়া উপজেলার হাজিপুর ইউনিয়নের পাবই গ্রামে ডাকাত অবস্থানের খবর পেয়ে টহলে নামে পুলিশ। টহর চলাকালে একটি বাঁশঝাড় থেকে পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে প্রথমে টর্স লাইট দিয়ে আলো ও পরে গুলি ছুঁড়া হয়। এ সময় বাঁশঝাড় দিকে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুঁড়ে। বন্ধুক যুদ্ধের কিছুক্ষন পর গুলি ছুড়া বন্ধ হইলে পুলিশ বাশঁ ঝাড়ের নিচে একজনের লাশ পড়ে থাকতে দেখে। পরে গ্রামবাসীরা পরিচয় কমলগঞ্জের কুমড়া কাপনের আন্ত: বিভাগ ডাকাত স¤্রাট ইসলাম সনাক্ত করে।
এদিকে গুলাগুলির সময় আহত চার পুলিশ সদস্যরা কুলাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছেন। তারা হলেন, এস আই ইয়াছিন মিয়া, কনস্টেবল কুদ্দুছ মিয়া, আলতাব ও খায়রুল।
কুলাউড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু ইউসুফ জানান, ইসলাম ডাকাতের বিরুদ্ধে ০৮ টি ডাকাতি, ৫ টি চুরি ও ১ টি অন্যান্য মামলা বিচারাধীন আছে। ইসলাম উদ্দিন এর লাশের ডান হাতের পাশে একটি এলজি বন্ধুক ও ৫ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। ইসলাম ডাকাত বিভিন্ন এলাকায় ভিন্ন ভিন্ন নামে পরিচিত। কোথাওকামরুল ইসলাম কোথাও ইসলাম আলী আবারও কোথাও শুধু ইসলাম নামে পরিচিত। তার বাড়ি কমলগঞ্জ উপজেলার কুমরা কাপন গ্রামে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত