বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মুক্তিযুদ্ধের তথ্য সংগ্রহে সরকারের উদ্যেগের সাথে স্থানীয়দের সামিল হওয়ার আহবান



রুপম আচার্য্য, শ্রীমঙ্গল:
বিশ্বের অনান্য দেশে স্বাধীনতা যুদ্ধের স্মৃতি গুরুত্বের সাথে সংরক্ষন করা হয়েছে। আর আমাদের দেশে স্বাধীনতা যুদ্ধের  স্মৃতি সংরক্ষনতো দুরের কথা  আমাদের দেশে  স্বাধীনতার স্থপতিকে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাত ৮টায় মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল গ্র্যান্ড সেলিম রির্সোটে সাংবাদিক বিকুল চক্রবর্তী আয়োজিত মুক্তিযুদ্ধের আলোকচিত্র ও স্মারক প্রদর্শনীর সমাপনি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন সমাজ কল্যান মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপি।

অবসর প্রাপ্ত অতিরিক্ত সচিব বনমালি ভৌমিকের সভাপতিত্বে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে মন্ত্রী আরো বলেন, এখন মুক্তিযুদ্ধের সরকার ক্ষমতায় তাই এখনই তা সংরক্ষনের উপযুক্ত সময়। মন্ত্রি বলেন, সরকার তা সংরক্ষনের কাজ করছে তাই সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগকে  এ বিষয়ে অবহিত করে তা সংরক্ষনে সহায়তা করতে হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পাটির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মো: সিকান্দর আলী, ডা: হরিপদ রায় ও ইউপি চেয়ারম্যান রনেন্দ্র প্রসাদ বর্ধন, আবাসন ব্যবসায়ী আবু সিদ্দিক মোছা , মোহাজেরাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কামরুল ইসলাম ও গ্র্যান্ড সেলিম এর সত্বাধিকারী  সেলিম আহমদ।

অধ্যাপক রজত শুভ্র চক্রবর্তীর সঞ্চালনায় আরো  বক্তব্যদেন সাংবাদিক মুজিবুর রহমান রঞ্জু, সাংবাদিক আব্দুল হান্নান চিনু, বিটিআর আই উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সায়েক আহমদ, চন্দ্রনাথ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জহর তরফদার, ও  সাংবাদিক এস কে দাশ সুমন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি সংরক্ষনে উৎসাহিত করতে  মৌলভীবাজার, শ্রীমঙ্গল, কমলগঞ্জ, রাজনগর ও কুলাউড়া উপজেলার সাংবাদিক ও লেখকসহ  ২৬ জনকে মুক্তিযুদ্ধের তথ্যচিত্র সংরক্ষনে সহায়তার জন্য সম্মাননা দেয়া হয়।

এর আগে মন্ত্রী ও অতিথিরা  প্রদর্শনীটি পরিদর্শন করেন।

উল্লেখ্য বিগত ৩০ মে সাংবাদিক  বিকুল চক্রবর্তী নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানাতে আয়োজন করেন মুক্তিযুদ্ধের আলোকচিত্র ও স্মারক প্রদর্শনী। দেড় মাসেরও অধিক সময় প্রদর্শনী চলাকালে পরিদর্শন করেছেন কয়েক হাজার দর্শনার্থী।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত