বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

খলিপুরে সংঘর্ষের নেপথ্যে জমি দখল, আবারো রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষের আশঙ্কা



নিজস্ব প্রতিবেদক:
মৌলভীবাজার সদর উপজেলার খলিপুর ইউনিয়নের পম্মদপুর এলাকায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ২ জন নিহত ও ৩০ জন আহত হয়েছেন।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, পম্মদপুর গ্রামের লেবাস মিয়া ও এলাইছ মিয়ার মধ্যে দীর্ঘদিন থেকে হাওর এলাকায় সরকারি বিলের জমি দখল নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উভয় পক্ষের সমর্থক দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।
সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ২ জন ঘটনাস্থলে নিহত ও অন্তত ৩০ জন আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল ও সিলেট এমএজি ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
নিহতরা হলেন, লেবাস মিয়া গ্রুপের সফিকুর রহমান ও এলাইছ মিয়া গ্রুপের আব্দুল মালিক। নিহতদের লাশ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।
উভয়পক্ষের আউয়াল মিয়া (৩৪), রুমান মিয়া (২৭), রায়হান (২৫), সুফি মিয়া (৬০), মহরুপ রহমান (৩০), রাজীব আহমদ (৩৩), আহতাব হোসেন (১৭), রেজিয়া (২৮), জমসেদ মিয়া (৫৫), ফখরুল ইসলাম (৪৬), ইমন মিয়া (৩০), তাহের মিয়া (৩৩), জয়নাল মিয়া (৪০), মো. সুয়েব (২৪), রুনা বেগম (১৭), হুছনা বেগম (৪০), ইকরা মিয়া (৪০), সেলিম মিয়া (২৭), রুহেনা বেগম (২৮), হালিমা বেগম (২৩), মিনহাজ মিয়া (৩৩), মহসীন মিয়া (২৮), উমেদ মিয়া (২৩), সুহেল মিয়া (৩৫), লিয়াকত মিয়া (৩০), মিনারা (৬০), মধুমালা (৬৭) সহ প্রায় ৩০ জন আহত হয়েছেন।
মৌলভীবাজার সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রাশেদুল ইসলাম ও খলিলপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অরবিন্দু পোদ্দার বাচ্চু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, হাওরের খাস ভূমির দখলদারিত্ব নিয়ে দীর্ঘ প্রায় ১৫-২০ বছর থেকে বিরোধ চলছে। এনিয়ে স্থানীয় পর্যায়ে একাধিক সালিশ বৈঠকেও এর কোন সুরাহা হয়নি। ২-৩ দিন থেকে পুরনো এ দ্বন্ধ আবারো শুরু হয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় এই নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে সংর্ঘষে জড়িয়ে পড়লে কয়েকজন আহত হন ও কয়েকটি বাড়িও ভাংচুর হয়। পরে স্থানীয়রা উভয়পক্ষকে শান্ত করেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ১৪ জুলাই শনিবার সকালে আবারো উভয় পক্ষ দেশীয় অস্ত্রসহ নিয়ে হয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে হতাহতের ঘটনা ঘটে। কয়েক ঘন্টা সংর্ঘষ চলারপর পুলিশ ও এলাকাবাসীর হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। তবে এ ঘটনায় আবারো রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়ন রয়েছে।

 

#দৈনিক মৌলভীবাজার/নাঈম/ওফানা

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত