রবিবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মৌলভীবাজারে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, সড়ক অবরোধ



নিজস্ব প্রতিবেদক:

নিরাপদ সড়কের দাবীতে মৌলভীবাজারে বিভিন্ন বিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করেছে।

শনিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিভিন্ন বিদ্যালয় ও কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা মিছিল ও স্লোগান দিয়ে শহরের প্রাণ কেন্দ্র চৌমুহনী চত্তরে এসে জড়ো হয়। এসময় তারা “উই ওয়ান্ট জাষ্টিশ”, “ফুল দিও কলি দিও কাটা দিও না আস্তে আস্তে গাড়ি চালাও চাপা দিও না”, “যদি তুমি ভয় পাও তবে তুমি শেষ যদি তুমি রুখে দাড়াও তবে তুমি বাংলাদেশ”, “সান্তনা চাই না বিচার চাই”সহ বিভিন্ন স্লোগান দেয় এবং ফেস্টন প্রদর্শন করে। সড়ক অবরোধ করে বিভিন্ন যানবাহনের লাইসেন্স ও কাগজপত্র চেক করে।

পরিস্তিতি শান্ত রাখতে জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহজালাল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: রাশেদুল ইসলাম, মডেল থানা ওসি সোহলে আহম্মদসহ প্রশাসনের বিভিন্ন স্থরের কর্মকর্তারা বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের আহ্বান করেন। আসেন মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র মো: ফজলুর রহমান। এসময় মেয়রের কাছে ৯দফা দাবী তুলে ধরে আন্দোলনরত ছাত্ররা।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানানা, “দুপুরের দিকে সংঘবদ্ধ আন্দোলন জোড়ালো হলে ছাত্রলীগ ও যুবলীগ পরিচয় দিয়ে কয়েকজন বাঁধা দিলে আন্দোলনে বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। একপর্যায়ে চৌমুহনা চত্তরের শিক্ষার্থীরা শহরের প্রেসক্লাব পয়েন্ট ও কোর্ট রোডে অবস্থান নেয়। প্রেসক্লাব পয়েন্টে একটি প্রাইভেট কার আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপেক্ষা করে শাহ মোস্তফা রোডের দিকে অতিক্রম করে। ওই সময় বিক্ষোব্ধ শিক্ষার্থীরা প্রাইভেট কারটি ভাঙচুর করে। পরে বিচ্ছিন্ন আন্দোলনটি দুপুরে এসে শেষ হয়।”

আন্দোলনকারীদের মধ্যে ছিল মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ, সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, সরকারী মহিলা কলেজ, শাহ মোস্তফা কলেজ, কাশিনাথ আলাউদ্দিন স্কুল ও কলেজ, ইম্পিরিয়েল কলেজ, দি ফ্লাওয়ার্স কেজি, পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটসহ শহরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।
সকাল থেকেই শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে ও অলিগলিতে ছাত্ররা অবস্থান করে। এবং সকাল ১১টায় এই আন্দোলন শুরু হয়। তবে সিএনজি পরিবহন শ্রমিকদের ধর্মঘটের কারণে গণ পরিবহন চলাচল বন্ধ ছিল।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত