বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

“ছাত্রলীগের ইতিহাসে অন্যতম সেরা কমিটি হবে শোভন-রাব্বানী”



নিজস্ব প্রতিবেদক:
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নতুন কমিটি হবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ইতিহাসে অন্যতম সেরা কমিটি হবে এমনটাই মনে করেছেন ছাত্রলীগ নেতা শাহাদাত। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক গোলাম রাব্বানী তারুন্যের অহংকার, মানবতার ফেরিওয়ালা, অত্যন্ত দক্ষ। শাহাদাত মনে করেন তাকে দিয়েই আদর্শিক ছাত্রলীগ নেতৃত্ব বিকশিত হবে। অন্যদিকে সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনও বেশ দক্ষ।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ২৯তম জাতীয় সম্মেলনের প্রায় দুই মাস পর ঘোষিত হয়েছে নতুন কমিটি। কেন্দ্রীয় কমিটিতে সভাপতি হয়েছেন, মো. রেজোয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন গোলাম রাব্বানী।

কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী ঐতিহ্যবাহী আওয়ামী পরিবারের সন্তান শোভন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের মেধাবী ছাত্র। তিনি আইন বিভাগ থেকে সদ্য মাস্টার্স সম্পন্ন করেছেন। সদ্য বিদায়ী ছাত্রলীগের কমিটির কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য ছিলেন।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের রাজনীতিতে পাঁচবছর ধরে সম্প্রক্ত গোলাম রাব্বানী বিভিন্ন সময় বঙ্গবন্ধু হল শাখা ছাত্রলীগের তথ্য প্রযুক্তি সম্পাদক, সোহাগ-নাজমুল কমিটিতে উপ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক এবং বিদায়ী কমিটিতে শিক্ষা ও পাঠচক্র সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের সঙ্গে সম্পৃক্ত এই ছাত্রেনেতা তৃণমূল ছাত্রলীগ কর্মীদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। ২০১৪ সালে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটুক্তি করায় ব্যারিস্টার তুহিন মালিকে বিরুদ্ধে ঢাকার সিএমএম আদালতে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করে আলোচিত হয়েছিলেন এই ছাত্রনেতা এবং গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরানের বিরুদ্ধে ও মামলা করেন প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনাকে অশালীন ও কটূক্তি করে শ্লোগান দেবার কারণে।

এবিষয়ে ছাত্রনেতা শাহাদাত বলেন, “বাংলাদেশ ছাত্রলীগের মতো ঐতিহ্যবাহী সংগঠন গড়ার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা ছাত্রলীগ কে নিয়ে যেই দূরদর্শী চিন্তা করে নিজ দায়িত্বে কমিটি গঠন করার অভিপ্রায় করেছেন তা মনেকরি সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্তই তিনি করেছিলেন।  তিনি যাকে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে মনোনয়ন করেছে। তা একেবারে সঠিক ভাবেই মনোনয়ন করেছেন। আশাকরি তাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব যেন সঠিকভাবে পালন করতে পারে সেই কামনা সবসময় ই থাকবে। ছাত্রলীগের রাজপথের লড়াকু সৈনিক, বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একমাত্র অনুসারী। সর্বস্তরে ছাত্রলীগের আদর্শের দূত হয়ে ছড়িয়ে দিবে এই ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের আলোরবার্তা। ঘরে ঘরে জন্ম নিবে মুজিব আদর্শের দিকপাল। সফলতা ও উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করছি।”

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত