বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

কুলাউড়ায় থানায় ডুকে পুলিশ লাঞ্চিত, শ্রমিকলীগ নেতা জেল হাজতে




মৌলভীবাজারের কুলাউড়া থানায় ডুকে আসামী দেখতে গিয়ে কর্তব্যরত পুলিশ কনস্টেবলকে লাঞ্চিত করার ঘটনায় সোমবার রাত ৯টায় উপজেলা শ্রমিক লীগ নেতা আতাউর রহমান চৌধুরী সোহেলকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে এবং  মঙ্গলবার সকালে পুলিশ তাকে মৌলভীবাজার আদালতে সোপর্দ করে।

কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) সঞ্জয় চক্রবর্তী জানান, সোমবার রাত ০৯ টায় কুলাউড়া উপজেলা শ্রমিক লীগ নেতা আতাউর রহমান চৌধুরী সোহেল কুলাউড়া থানা হাজতে আসামী দেখতে যান। এসময় বিনা অনুমতিতে হাজতখানায় যেতে নিষেধ করেন কর্তব্যরত পুলিশ কনস্টেবল আলবাব। কিন্তু শ্রমিক লীগ নেতা সোহেল চৌধুরী নিষেধ অমান্য করে আসামী দেখতে যান এবং আসামী দেখা শেষে নিষেধকারী কর্তব্যরত কনস্টেবল আলবাবকে লাঞ্চিত করেন।

এসময় থানায় কর্তব্যরত অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা শ্রমিক লীগ নেতা সোহেল চৌধুরীকে আটক করেন।

রাতেই (এএসআই) ওয়াসিম বাদী হয়ে কুলাউড়া থানায় সোহেল চৌধুরীকে আসামী করে একটি পুলিশ অ্যাসল্ট মামলা (নং ১৭ তাং ১৩/০৮/১৮) দায়ের করেন।

উল্লেখ্য,সুহেল কুলাউড়া পৌর শহরের বাদে মনসুর গ্রামের মৃত মিজানুর রহমান চৌধুরীর ছেলে
বর্তমানে  উপজেলা শ্রমিকলীগের অাহবায়কের  পদ দাবি করে শ্রমিকলীগের বিভিন্ন কার্যক্রমের প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছে।    এছাড়াও সে  কুলাউড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত