মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

শ্রদ্ধা আর শোকে মাহফুজুর রহমানকে বিদায়



মাহফুজুর রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক::

মৌলভীবাজারের লোক গবেষক ও সাংস্কৃতিক সংগঠক মাহফুজুর রহমানকে (৬৩) শ্রদ্ধা আর শোকে বিদায় জানিয়েছেন গুণগ্রাহীরা।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে সাতটায় মৌলভীবাজার শহরের কলিমাবাদ এলাকায় নিজ বাসভবনে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিলাহি ওয়া ইন্নাইলাহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে, আত্মীয়স্বজন ও অনেক গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মাহফুজুর রহমান ‘সিলেট অঞ্চলে নৃতাত্তিক  ও ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠী’ ‘হাওর করাইয়ার কৃষক আন্দোলন’ ‘বিপিন চন্দ্র পাল’সহ মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক অনেকগুলো গবেষণাগ্রন্থের লেখক।

সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য শুক্রবার সকাল ১১টায় তাঁর মরদেহ মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ-সংলগ্ন কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নিয়ে আসা হয়। এখানে দুপুর সোয়া ১২টা পর্যন্ত রাজনীতিবিদ, শিল্পী-সাহিত্যিক, সাংস্কৃতিক সংগঠকসহ বিভিন্ন স্তরের মানুষ তাঁকে শেষ শ্রদ্ধা জানান।

তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতিমন্ডলীর সদস্য সৈয়দ আবু জাফর আহমদ, পৌর মেয়র মো. ফজলুর রহমান, সিপিবি জেলা কমিটির সভাপতি মকবুল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক নিলিমেষ ঘোষ, নাট্যকার আব্দুল মতিন, জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান, উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী জেলা সংসদের সভাপতি ডাডলি ডেরিক প্রেন্টিস, আওয়ামী যুবলীগ জেলা কমিটির সভাপতি নাহিদ আহমদ, শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক মিন্টু, ছড়াকার শাহাদাৎ বখত, পরিবেশকর্মী আ স ম ছালেহ সুহেল, সাংস্কৃতিক সংগঠক সৈয়দ সলমান আলী, প্রবীণ নাগরিক মঞ্জু গোপাল দেব, ছাত্র ইউনিয়ন মৌলভীবাজার জেলা সংসদের সভাপতি সুবিনয় রায় শুভ প্রমুখ।

এছাড়াও অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কবি নৃপেন্দ্র লাল দাশ, প্রাবন্ধিক ও সিলেটের মদন মোহন কলেজের অধ্যক্ষ আবুল ফতেহ ফাত্তাহ, লোকগবেষক আহমদ সিরাজ, সাহিত্যের ছোটকাগজ ফসল সম্পাদক মো. আব্দুল খালিক প্রমুখ।

পরে বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে তাঁর মরদেহে শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়েছে। পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়েছে স্থানীয় সাংসদ সৈয়দা সায়রা মহসিনের পক্ষ থেকে।

এছাড়া জেলা পরিষদ, পৌরসভা, আওয়ামী শিল্পীগোষ্ঠী, সিপিবি, জাসদ, বাসদ, মৌলভীবাজার প্রেসক্লাব, উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী, জাতীয় কবিতা পরিষদ, শিশু একাডেমি, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, জেলা নাট্য পরিষদ, জেলা শিল্পকলা একাডেমি, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক সংসদ, বাংলাদেশ প্রগতি লেখক সংঘ, সিনিয়র সিটিজেন ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, রেডিও পল্লীকন্ঠ, মণিপুরি থিয়েটার, জীবনচক্র থিয়েটার, জাতীয় রবীন্দ্রসংগীত সম্মিলন পরিষদ, চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, ছাত্রলীগ, আলোকধারা প্রভৃতি সংগঠনের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়েছে।

বেলা দুইটায় শাহ মোস্তফা (রঃ) মাজারসংলগ্ন ঈদগাহ মাঠে জানাজা শেষে দরগা প্রাঙ্গণে তাঁর দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত