বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

শ্রীমঙ্গলে ৪র্থ চা নিলাম অনুষ্ঠিত, চট্টগ্রাম-সিলেট আরেকটি ট্রেন চালুর দাবী



নিলাম কার্যক্রম পরিদর্শন করেছেন সিলেট চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাস্টিজ ও সিলেট মেট্রো পলিটন চেম্বার অব কর্মাস ইন্ডাস্টিজর একটি প্রতিনিধি দল

রুপম আচার্য্য, শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি::
মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গলে ৪র্থ চা নিলাম কার্যক্রম অনুষ্টিত হয়েছে। আর এ নিলামে তুলা হয়েছে ২২ লাখ কেজি চা। একই সাথে এ নিলাম কার্যক্রমে প্রথমবারের মত মৌলভীবাজারের একটি ব্রোকার হাউস অংশ গ্রহন করেছে। এদিকে এ নিলাম কার্যক্রম পরিদর্শন করেছেন সিলেট চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাস্টিজ ও সিলেট মেট্রো পলিটন চেম্বার অব কর্মাস ইন্ডাস্টিজর একটি প্রতিনিধি দল। পরিদর্শন শেষে তারা শ্রীমঙ্গলের এই চা নিলাম কেন্দ্র সচ্ছল রাখতে সিলেট- চট্টগ্রাম লাইনে আরো একটি আন্তনগর ট্রেন চালুর দাবী জানান।

টি বোর্ডের অধীন টি ট্রেডার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টিটিএবি) এর পরিচালনায় এবং টি প্লান্টারস এন্ড ট্রেডার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টিপিটিএবি) এর সহযোগীতায় শ্রীমঙ্গল খান টাওয়ারে সকাল নয়টা থেকে চা নিলাম কার্যক্রম শুরু হয়। নিলামে দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্টানের শতাধিক বায়ার ও ৮টি ব্রোকার হাউজ অংশ নেয়। এর মধ্যে মৌলভীবাজারের জালালাবাদ টি ব্রোকার্স লিমিটেড প্রথমবারের মত ১১ হাজার কেজি চা নিয়ে নিলাম কার্যক্রমে অংশ গ্রহন করে বলে জানান টপিটিএবি এর সদস্য সচিব জহর তরফদার।

এদিকে বুধবারের এ নিলামে সবচেয়ে বেশি ২২ লাখ ১১ হাজার কেজি চা উত্তোলন হয়। যার ৯৫ ভাগ চাই বিক্রি হয়। টপিটিএবি এর সদস্য ও শ্রীমঙ্গল এম আর খান চা বাগানের মালিক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী জানান, শ্রীমঙ্গরে ৪র্থ চা নিলামে উত্তোলিত চায়ের আনুমানিক মূল্য হবে ৬০ কোটি টাকা। আর টপিটিএবি এর আহব্বায়ক ড. এ কে আব্দুল মোমেন জানান, প্রথম থেকেই সফলতার সহিত শ্রীমঙ্গলে চলছে চা নিলাম কার্যক্রম। প্রতিটি নিলামে চা ক্রয়-বিক্রয়ের পরিমান বাড়ছে। এর ফলে তারা চিন্তা করছেন আগামীতে শ্রীমঙ্গলে প্রতিমাসে একটির পরিবর্তে ২টি নিলাম কার্যক্রম পরিচালনার। এদিকে বুধবার এ নিলাম কার্যক্রম পরিদর্শনে আসেন সিলেট চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাস্টিজ ও সিলেট মেট্রো পলিটন চেম্বার অব কর্মাস ইন্ডাস্টিজ এর একটি প্রতিনিধি দল।

পরিদর্শনে এসে সিলেট চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাস্টিজ এর সভাপতি খন্দকার সিপার উদ্দিন ও সিলেট মেট্রো পলিটন চেম্বার অব কর্মাস ইন্ডাস্টিজ এর সভাপতি হাসিন আহমদ শ্রীমঙ্গলের চা অকশনকে সর্বাত্মক সহায়তার আশ্বাস দেন। এ সময় তাদের সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন সিলেট চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাস্টিজ এর সিনিয়র সহ সভাপতি মাসুদ আহমদ চৌধুরী, পরিচালক আব্দুর রহমান, পরিচালক মোয়াম্মীর হোসেইন চৌধুরী ও সিনিয়র টি প্লান্টার নুরুল ইসলাম চৌধুরী।

পরিদর্শন কালে তারা সাংবাদিকদের জানান, সিলেটে চা নিলাম কেন্দ্র স্থাপন দীর্ঘ দিনের দাবীর ফসল। দেশের মুল উৎপাদনের ৯৩ ভাগ চা সিলেটে উৎপাদন হয়। যার গুরুত্ব বিবেচনা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত দেশের ২য় চা নিলাম কেন্দ্র শ্রীমঙ্গলে পতিস্থাপিত করেন। তবে তারা সরকারসহ সংশ্লিষ্টদের কাছে দাবী করেন শ্রীমঙ্গলে প্রতিমাসে একটির পরিবর্তে যেন ২টি অকসন হয় এবং শ্রীমঙ্গলের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে সরকার নজর দেন। বিশেষ করে চট্টগ্রাম সিলেট আলাধা আরেকটি ট্রেন চলাচলের জোর দাবী জানান তারা।
অকশন সেন্টার পরিদর্শন শেষে তারা শ্রীমঙ্গলের চায়ের ওয়ার হাউজ ও বেশ কয়েকটি চা বাগান পরিদর্শন করেন।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত