শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বিদেশ থেকে ফোন এসেছিল ‘সিলেট যারে যখন বিদায় নিয়ে যাস’



প্রবাসী আওয়ামীলীগ নেতা অাব্দুল আহাদ।

নিজস্ব প্রতিবেদক::

সিলেটের জিন্দাবাজারে নিহত কুয়েত আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সম্পাদক আব্দুল আহাদের গ্রামের বাড়ি রাজনগর উপজেলার মেদিনিমহল গ্রামে দাফন সম্পন্ন হয়েছে। নিহতের স্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, সিলেটে তিনি কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পদক ওবায়দুল কাদের অনুষ্ঠানে যোগদিতে সিলেট যান। সিলেটে তিনি আওয়ামীলীগ নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাতও করেন। নিহতের স্ত্রী জানান, সিলেট যাওয়ার আগে একটি ফোন এসেছিল বিদেশ থেকে। ফোনে বলা হয়েছিল ‘সিলেট যারে যখন বিদায় নিয়ে যাস’। বিষয়টি তিনি গুরুত্ব দেননি। শুক্রবার বিকালে সিলেট থেকে বাড়িতে ফেরার কথা ছিল। কিন্তু রাতে সিটের জিন্দাবাজের সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে নিহত হন।

আব্দুল আহাদের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, কুয়েত প্রবাসী আব্দুল আহাদ (৩৮) বাংলাদেশে থাকাবস্থায় ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়িত ছিলেন। পাশাপাশি তিনি সাংবাদিকতাও করতেন। জনতার প্রত্যাশা নামক প্রত্রিকার প্রতিনিধি হিসেবে রাজনগর প্রেসক্লাবের সদস্য ছিলেন। এরপর তিনি কুয়েত চলে যান। দীর্ঘদিন কুয়েত থাকায় তিনি আওয়ামীলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। বিগত কাউন্সিসিলে তিনি কুয়েত আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হন। একই সময়ে কুয়েতে ‘সিলেট লেখক ফোরামের’ সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত