শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

শাহজালাল ও শাহ পরান মাজার জিয়ারত করে নির্বাচনী দোয়া নিলেন সুলতান মনসুর



স্টাফ রিপোর্টারঃ

সিলেটের হযরত শাহ জালাল ও শাহপরান (র:) মাজার ও শাহজালাল (র:) মাজার সংলগ্ন কবর স্থানে শায়িত বাবা মায়ের কবর জিয়ারতের মাধ্যমে নির্বাচনের জন্য দোয়া নেন সাবেক ডাকসুর ভিপি,এম.পি ও জাতীয় ঐক্যফন্টের কেন্দ্রীয় নেতা সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে মাজার ও কবর জিয়ারতের মাধ্যমে নির্বাচনী দোয়া নেন তিনি। এসময় তিনি তাঁর নির্বাচনী এলাকা মৌলভীবাজার-২ (কুলাউড়া) এর বাসিন্দাসহ দেশবাসীর কাছে দোয়া চান।
জিয়ারতের পর তিনি বলেন, “দেশে চরম ক্রান্তিলগ্ন যাচ্ছে। দেশে এখন গণতন্ত্র আইনের শাসন বাকস্বাধীতা নেই বললেই চলে। বিরুধী মত ও পথের কোন মানুষই আজ নিরাপদে নেই। দেশ থেকে নানা ভাবে হাজার হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার হচ্ছে। উন্নয়নের নানা উৎসগুলো ধ্বংস করা হয়েছে। প্রশাসনকে আয়ত্বে নিয়ে দেশে আইনের শাসনকে ভূ-লুন্ঠিত করা হয়েছে। আত্মীয়করণ দলীয়করণ আর সরকারের মদদে দেশে দূর্নীতির মহোউৎসব চলেছে। ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে কয়লা খনি। লুটপাট থেকে বাদযায়নি কোন সংস্থায়ই। সরকারের এমন অপকর্মের বিরুদ্ধে কেউ কথা বলতে পারেনা। প্রতিবাদও জানাতে পারেনা। যে সাহস করে প্রতিবাদী হয় সেই গুম খুন অপহরনের শিকার হয়। আর না হয় মিথ্যা হয়রানী ও গায়েবী মামলায় কারাগারের অন্ধ প্রকোষ্টে মাসের পর মাস থাকতে হয়। পথে ঘাটে ডুবায় বেওয়ারিশ লাশ মেলে। দেশে বিচার বর্হিভূত হত্যাকান্ড এ যেন নিত্য নৈমেত্তিক ঘটনা। দলকানা ভোটার বিহীন এসরকার দেশকে ধ্বংস করে দিয়েছে।  বিচার বিভাগের উপর হস্তক্ষেপ করে মানুষের আস্থার উপর আঘাত হেনেছে এই সরকার। তাই ভোটার বিহীন জালিম এই সরকারকে দেশবাসীর স্বার্থে দেশের উন্নয়ন, গণতন্ত্র আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াসহ সকল রাজবন্ধীদের মুক্তির প্রেক্ষিত আগামী ৩০ ডিসেম্বরের ভোটের মাধ্যমে বিদায় জানাতে হবে। এনির্বাচন দেশ ও গণতন্ত্র রক্ষার জন্য অতি গুরুত্বপূর্ন উল্লেখ করে সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ বলেন এ নির্বাচনের ফলাফল বানচাল করতে সরকার নানা ভাবে তৎপরতা চালাবে তাই সকলকে সোচ্ছার থাকতে হবে। ভোট কেন্দ্র পাহারা দিতে হবে।
তাঁর নির্বাচনী এলাকার ভোটারদের উদ্দেশ্যে সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ বলেন আমি আপনাদের সন্তান। দীর্ঘদিন থেকে মিথ্যা অভিযোগ ও ষড়যন্ত করে আমাকে রাজনীতি থেকে দূরে রাখার অপচেষ্ঠা চালানো হয়েছে। কিন্তু আমি দমে যাইনি। আমি আপনাদের কল্যাণে দেশবাসীর সেবায় রাজনীতিতে বেঁচে আছি। শেষ জীবনেও আমার জন্ম মাটি ও দেশবাসীর কল্যাণে কাজ করে যেতে চাই। এটা আমার রাজনৈতিক জীবনের দৃঢ় প্রত্যয়। সে জন্য আপনাদের মহামূল্যবান ভোটের মাধ্যমে আমাকে সুযোগ দিন। আমি আপনাদের সন্তান, ভাই, ভাতিজা ও স্বজন। আমি আপনাদের ভালোবাসা দোয়া,আর্শিবাদ, সমর্থন ও সহযোগিতা চাই। ৩০ডিসেম্বর জাতীয় ঐক্যফন্টের মার্কা ধানের শীষে ভোটে দিতে সকলের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত