সোমবার, ২০ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

জাতীয় সংসদে বিরোধী দল কোনটি?



স্টাফ রিপোর্টার:

জাতীয় সংসদে ‘বিরোধী দল’ কে হবে- তা নিয়ে জটিলতা দেখা দিয়েছে। আগামী সোমবার আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নতুন সরকার গঠন হচ্ছে। এদিন বিকাল সাড়ে ৩টায় বঙ্গভবনে প্রধানমন্ত্রীসহ মন্ত্রিসভার সদস্যদের শপথ পাঠ করাবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

২৯৮ আসনের মধ্যে ২৫৯টিতে ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয় পেয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। জোটগতভাবে তারা পেয়েছে ২৮৮ আসন। তাদের প্রধান প্রতিপক্ষ বিএনপি ও তাদের জোটসঙ্গীরা সব মিলিয়ে মাত্র সাতটি আসন পেয়েছে।

টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় এসে ফের জোটগতভাবে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ। ইতিমধ্যে মহাজোটের শরিকরা (১৪ দল, জাতীয় পার্টি, যুক্তফ্রন্ট) তাদের সম্মতি জানিয়েছে। তবে ‘বিরোধী দল’ কে হবে- তা নিয়ে জটিলতা দেখা দিয়েছে।

এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আবদুর রাজ্জাক গণমাধ্যমকে বলেন, প্রধানমন্ত্রী চান জাতীয় পার্টি বিরোধী দলে থাকুক। এ নিয়ে কথাও হয়েছে। কিন্তু জাতীয় পার্টি তা চায় না। যদি তারা সরকারে থাকে তা হলে তো মহাজোটের সরকারই হবে। দেখা যাক, শেষ পর্যন্ত কী হয়। এদিকে একাদশ জাতীয় সংসদের সদস্য হিসেবে শপথ নেয়ার পর সরকারে থাকার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে জাতীয় পার্টি।

বৃহস্পতিবার সংসদে জাতীয় পার্টির সংসদীয় দলের বৈঠক থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের দলটির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা মহাজোটের হয়ে নির্বাচন করে জয়লাভ করেছি। আমরা মহাজোটের সঙ্গে অতীতে যেভাবে রাজপথে ও সরকারে ছিলাম, ঠিক সেভাবেই থাকতে চাই।

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের অন্যতম শরিক বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা ১৪ দলের সঙ্গে আছি; সঙ্গেই থাকব। সরকারেও যেভাবে আছি থাকতে চাই। তবে সিদ্ধান্ত নেবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রসঙ্গত ১৯৯৬ সালে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ ঐকমত্যের সরকার গঠন করেছিল। এর পর ২০০৮ ও ২০১৪ সালে মহাজোটের ব্যানারে নির্বাচন করে সরকার গঠন করে দলটি।

বর্তমান মন্ত্রিসভায় জাতীয় পার্টির একজন মন্ত্রী, দুজন প্রতিমন্ত্রী ও পূর্ণমন্ত্রী মর্যাদায় একজন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত আছেন। এর বাইরে জাতীয় পার্টি (জেপি), ওয়ার্কার্স পার্টি ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) একজন করে সদস্য মন্ত্রিসভায় আছেন।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত