বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মবশ্বির-রাবেয়া ট্রাস্টের ৫দিন ব্যাপী ফ্রি চক্ষু শিবির শুরু



স্টাফ রিপোর্টারঃ
মৌলভীবাজার পৌর এলাকার পশ্চিম ধরকাপন এলাকায় মবশ্বির-রাবেয়া ট্রাস্টের উদ্যেগে ৬ষ্ট বারের মতো ৫দিন ব্যাপী ফ্রি চক্ষু শিবির শুরু হয়েছে। চক্ষু শিবিরে বিনামূল্যে দৃষ্টিশক্তি পরীক্ষা শেষে চোখের ছানিপড়া ১৮৪ জন ও চোখের নেত্রনালী (ডিসিআর) ৭০ জন রোগীকে অপারেশনের জন্য বাছাই করা হয়।

শনিবার সকাল ৯টায় মৌলভীবাজার বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের চিকিৎসা ব্যবস্থায় ফ্রি চক্ষু শিবিরের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের পরিচালনা পরিষদের সিনিয়র সহ সভাপতি, লেখক, গবেষক ও মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট মুজিবুর রহমান মুজিব।

মবশ্বির-রাবেয়া ট্রাষ্টের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ সৈয়দ জুবায়ের আহমদের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, মৌলভীবাজার প্রেসক্লাবের সভাপতি আবদুল হামিদ মাহবুব, বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালে সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মশাহিদ আহমদ, ট্রাষ্টের পরিচালক সৈয়দ হুমায়েদ আলী শাহীন। ট্রাষ্টের নির্বাহী পরিচালক এস এম উমেদ আলীর পরিচলনায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি সৈয়দ সাহাব উদ্দিন, মৌলভীবাজার পাবলিক লাইব্রেরীর সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম মুহিব, জামেয়া দ্বীনিয়া মাদ্রাসার প্রতিষ্টাতা অধ্যক্ষ মাওলানা মাসুদ আহমদ, মানবজমিন পত্রিকার ষ্টাফ রিপোর্টার মুু. ইমাদ উদ দীন, সাবেক ছাত্রনেতা ওবায়দুর রহমান ছালিক প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, “সমাজে অসহায় ও আর্তপীড়িত মানুষের কল্যাণে কাজ করার মধ্যে রয়েছে পরম তৃপ্তি। সৃষ্ঠিকর্তাকে ভালবাসতে হলে তার সৃৃষ্ট জীবকে ভালবাসতে হবে। আশরাফুল মখলুকাত সৃষ্টির সেরা জীব হচ্ছে মানুষ। তাই মানুষের সেবার মাধ্যমে আল্লাহর সন্তোষ অর্জন করা সম্ভব। এলাকার অসহায় ও দারিদ্র মানুষ অর্থাভাবে ঠিকমত চিকিৎসা করতে না পারায় নানা রোগে ভুগে থাকেন। চোখ হচ্ছে মানুষের অমূল্য সম্পদ। তাই চোখের যতœ নিতে হবে। সর্বোপরি সমাজের অবহেলিত মানুষের কল্যাণে বিত্তবানদের এগিয়ে আসতে হবে।

আয়োজকরা জানান- এ বছর রোগীর সংখ্যা গত বছরের চেয়ে বৃদ্ধি পেয়েছে। ফ্রি চক্ষু শিবিরে ২ হাজার ৭শত রোগীকে দৃষ্টিশক্তি পরীক্ষা শেষে এ বছর চোখের ছানিপড়া ১৮৪ জন ও চোখের নেত্রনালী (ডিসিআর) ১৭০ জন রোগীকে অপারেশনের জন্য বাছাই করা হয়। এ ছাড়াও ৫৫১ জনকে চশমা সহ অন্যান্যদের ঔষধ প্রদান করা হয়েছে। ২ থেকে ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ছানিপড়া রোগীদের বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালে অপারেশন কাজ চলবে। চোখের নেত্রনালী (ডিসিআর) অপারেশন ৯ ফেব্রুয়ারি শুরুহবে এবং প্রতিদিন ১০ জন রোগীর অপারেশন করা হবে।

উল্ল্যেখ্য, ২০১৮ সালে চক্ষু শিবিরে ছানীপড়া রোগী ২১০ জনকে ও চোখের নেত্রনালী (ডিসিআর) ৭০ জন রোগীকে অপারেশন করা হয়। এছাড়া ২০১৭ সালে ছানীপড়া রোগী ১৯৫ জনকে ও চোখের নেত্রনালী (ডিসিআর) ৫১ জন রোগী, ২০১৬ সালে ১২০ জন ছানীপড়া, ২০১৫ সালে ১১৭ জন এবং, ২০১৪ সালে ৯০ জন ছানীপড়া রোগীকে অপারেশন শেষে চোখে লেন্স সংযোজন করা হয়। মবশি^র রাবেয়া ট্রাষ্ট চক্ষু সেবার পাশাপাশি গৃহ নির্মান, রিক্সা বিতরণ, পবিত্র রমজান মাসে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ, হজ¦ প্রশিক্ষণ, অসহায় ও এতিমদের জন্য নগদ অনুদান প্রদান সহ আর্থ-মানবতার সেবায় বিভিন্ন কর্মকান্ড পরিচালনা করে আসছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত