বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কবর থেকে তুলতে হবে ওয়াসিমের লাশ



নিহত ওয়াসিম।

স্টাফ রিপোর্টারঃ

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ওয়াসিমের লাশ কবর থেকে উত্তোলনের আদেশ দিয়েছেন মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত চীপ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মোঃ বাহাউদ্দিন কাজী।

সিকৃবি ছাত্র ঘোরী মোঃ ওয়াসিম আব্বাসের লাশ পূর্বে ময়নাতদন্ত না হওয়ায় ঘটনার সুষ্টু তদন্ত ও ন্যায় বিচারের স্বার্থে লাশ কবর থেকে উত্তোলন করে ময়নাতদন্তের জন্য সম্প্রতি এ নির্দেশ দেন। ময়নাতদন্তের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য হবিগঞ্জ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দিয়েছেন।

ময়নাতদন্ত শেষে সমস্ত কাজের সমন্নয় করে আদালতকে অবহিত করবেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মৌলভীবাজার মডেল থানার এস আই গিয়াস উদ্দিন খান।

এ সংক্রান্ত এটি আদেশ হবিগঞ্জ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ সুপারের কাছে আদালত থেকে পাঠানো হয়েছে। আদালত একই বিষয়ে সহয়োগীতার জন্য অনুলিপি দিয়েছেন হবিগঞ্জের সিভিল সার্জন, মৌলভীবাজারের পুলিশ সপার, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নবীগঞ্জ, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মডেল থানা মৌলভীবাজার।

এদিকে মৌলভীবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সোহেল আহম্মদ জানান ৫ দিনের রিমান্ড শেষে বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে হত্যার বিষয়টি স্বীকারোক্তি দিয়েছেন উদার পরিবহনের বাস চালক জুয়েল আহমদ, হেলপার মাসুক মিয়া।

উল্লেখ্য, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র ওয়াসিমকে গত ২৩ মার্চ মৌলভীবাজারের শেরপুর এলাকায় বাস চাপায় হত্যা করা হয়। সে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার রুদ্র গ্রামের মোঃ আবু জাহেদ মাহবুব ও ডাঃ মীনা পারভিনের একমাত্র পুত্র। পরে গত ২৫ মার্চ বিশ্ব বিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড.মৃত্যুঞ্জয় কুন্ডু বাদী হয়ে মৌলভীবাজার মডেল থানায় উদার পরিবহনের চালক জুয়েল, হেলপার মাসুক ও সুপার ভাইজার সেফুল মিয়াকে হত্যা মামলার আসামী করে মামলা দায়ের করেন। আসামী বাসের সুপার ভাইজার এখনও পলাতক রয়েছেন।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত