শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পালাতে গিয়ে গণপিটুনি খেল ডাকাত দল, হাতিয়ারসহ আটক



স্টাফ রিপোর্টারঃ

মৌলভীবাজারের রাজনগরে পুলিশের হাত থেকে বাচতে পালিয়ে গণপিটুনি খেল ডাকাত দল। আম-জনতা ৪ ডাকাত ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন।

এসময় পুলিশ ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত একটি প্রোবক্স ও একটি প্রাইভেট কার আটক করে। এমনকি তাদের কাছ থেকে দেশীয় ধারালো অস্ত্রসহ তালা ভাঙ্গার হাতিয়ার উদ্ধার করা হয়েছে। এঘটনায় রাজনগর থানায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার ভোর রাতে উপজেলার ডেফলউড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়, গত মঙ্গলবার ভোর রাতে উপজেলার সদর ইউনিয়নের ক্ষেমসহ¯্র এলাকায় ১৫/২০ জনের ডাকাতদল প্রবেশ করেছে এমন খবর পেয়ে রাজনগর থানার পুলিশ ওই এলাকায় যায়। সেখানে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতরা তাদের ব্যবহৃত ৩টি গাড়ী নিয়ে পালাতে চেষ্টা করে। তাৎক্ষনিক পুলিশের অপর দুইটি টিমসহ ৩টি টিম বিভিন্ন দিক থেকে ধাওয়া করতে থাকে। এসময় ২ ডাকাতকে আটক করে পুলিশ।

এদিকে ডাকাতদলের প্রবেশের খবর উপজেলার টেংরা ইউনিয়নের ডেফলউড়া এলাকার মসজিদ থেকে ঘোষণা করা হলে স্থানীয় জনতা গাড়ীগুলোকে আটকের চেষ্টা করে। এসময় জনতার ধাওয়ায় একটি প্রোবক্স (ঢাকা মেট্রো-গ-২৩-০৫৫২) ও একটি প্রাইভেট কার (ঢাকা মেট্রো-ক-০৩-৬৮২৩) রেখে ডাকাতরা দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করলে ২ ডাকাতকে আটক করে এলাকাবাসী। পরে তাদেরকে গণপিটুনি দেয়ার সময় রাজনগর থানার পুলিশ গিয়ে তাদেরকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

আটককৃতরা হলো- মৌলভীবাজর সদর উপজেলার গুলবাগ এলাকার নূর মিয়ার ছেলে জসিম উদ্দিন (৩৫), কুলাউড়া উপজেলার কাদিপুর ইউনিয়নের মনসুর এলাকার সোহরাব হোসেনের ছেলে শাহজাহান আহমদ (২০), একই উপজেলার বাদে-মনসুর এলাকার মৃত ইব্রাহিম আলী কটরের ছেলে মুনিরুজ্জামান সৈকতকে (২২), সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে মুন্না মিয়া (২৮)।

ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত দুটি গাড়ি আটক করা গেলেও একটি গাড়ি নিয়ে কয়েকজন ডাকাত পালিয়ে যায়। উদ্ধার হওয়া গাড়ি দুটি থেকে দেশীয় ধারালো অস্ত্র ও তালা ভাঙ্গার বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় রাজনগর থানায় দুটি মামলা (নং ২৩ ও ২৪; তারিখ-৩০/০৪/২০১৯) দায়ের করা হয়েছে।

রাজনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসিম বলেন, জনতার সহায়তায় পুলিশ ডাকাতদের আটক করতে পেরেছে। সাধারণ মানুষরা পুলিশকে সহায়তা করলে সবধরণের অপরাধ বন্ধ করা যাবে। এঘটনায় ডাকাতি চেষ্টা ও অস্ত্র আইনে দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত