শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সুইন্ডনে “মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিসৌধ” বইয়ের মোড়ক উন্মোচন



নাজমুল সুমনঃ

বৃটেনের সুইন্ডনে বসবাসরত প্রবাসী তরুন লেখক আমিরুল হক বাবলুর মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গবেষণা ধর্মী বই ‘মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিসৌধ’ অ্যালবামের মোড়ক হয়েছে। অতি সম্প্রতি সুইন্ডনের স্থানীয় একটি প্রাইমারী স্কুলের হলে আয়োজিত প্রকাশনা অনুষ্ঠানে লেখক সাংবাদিক সহ স্থানীয় কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ সহ পরিবারে অংশ নেন।

বইটিতে সিলেট বিভাগে নির্মিত মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিসৌধগুলোর ছবি সহ ইতিহাস বাংলা ও ইংরেজীতে প্রকাশিত হয়েছে।

বাংলাদেশ এসোসিয়েশন সুইন্ডনের সাবেক সভাপতি ফজলুর রহমান আকিকের সভাপতিত্বে ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক চৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন সুইন্ডন কাউন্সিলের মেয়র কাউন্সিলার জুনাব আলী।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাপ্তাহিক জনমতের নিবাহী সম্পাদক কবি,গল্পকার সাংবাদিক সাঈম চৌধুরী, ডেইলি সিলেট এন্ড দৈনিক মৌমাছি কন্ঠের সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি কমিউনিটি লিডার সাংবাদিক মোহাম্মদ মকিস মনসুর,বালাগঞ্জ এডুকেশন ট্রাস্টের সাধারণ সম্পাদক কবি মিজানুর রহমান মীরু, ব্যবসায়ী শাহ শাফি কাদির, স্বপন রায়সহ অনেকে।অনুষ্ঠানে লেখকের দুই মেয়ে জারা ও সারা তাদের পিতার বইয়ের অংশ বিশেষ পড়ে শুনায়।অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে স্থানীয় ব্যান্ড ড্রীম ব্যান্ডের পরিবেশনায় বেশ কয়েকটি দেশাত্ববোধক গান পরিবেশন করা হয়।

এদিকে অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে বাংলা ভিশন টিভিও চৌদ্দ বছর পূর্তি উপলক্ষে প্রবাসী ক্যাটাগরিতে এবছর আমিরুল হক বাবলুকে লেখখ ও গবেষক হিসাবে গুনীজন সম্মাননা ক্রেস্ট দেওয়া হয়। আর সেই ক্রেস্ট আনুষ্ঠানিকভাবে লেখককের হাতে তুলেদেন সুইন্ডনের মেয়র জুনাব আলী।

মেয়র তার বক্তব্যে বলেন, মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিসৌধ অ্যালবামটি সত্যিই আমাদের ইতিহাস সমৃদ্ধি করবে,লেখককে ধন্যবাদ জানাই এমন কঠিন একটি কাজ সম্পাদন করার জন্য।

আমিরুল হক বাবলু বলেন,সময়ের প্রয়োজনে হৃদয়ের আকুতি থেকেই এই কাজটি করা।তিনি একাজে সহায়তার জন্য তার স্ত্রী ও পরিবারের সদস্যদের সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। একই সাথে দেশে তথ্য সংগ্রহে যারা সহযোগিতা করেছেন তাদের প্রতিও কতৃজ্ঞতা জানান।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত