বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শমসের নগর যেন প্রকৃতির এক নান্দনিক চিত্রকলা
ঈদ আনন্দ

ঈদ আনন্দ



শাহাদত বখত শাহেদ:: 

প্রকৃতির লীলাভূমি শমসের নগর। তার বিশাল বুক জুড়ে চা বাগান। চা বাগান বেষ্টিত পাহাড় ভূমি। সেই পাহাড়ের চারিদিকে সবুজের সমারোহ। উপরে উদার আকাশ। চোখ ও মনের দৃষ্টিতে এক দর্শনীয় স্হান। যা কবি শাহাদত বখ্ত শাহেদ তার কবিতার বলেন-“শমশের নগর যেন প্রকৃতির এক নান্দনিক চিত্রকলা”।

সেই চিত্রকলার এক চিত্রপট “বিছরাবান” যা শমসের নগর লেক নামে পরিচিত।
এই লেক শমসের নগর চা বাগানের আওতাভুক্ত বাগানের পূর্বপ্রান্তে অবস্হিত।

প্রকৃতিক এই নান্দনিক চিত্রকলার গল্প শেনো আর ধৈর্য রাখা যায়নি। তাই এবারে ঈদের ছুটিকে কাজে লাগিয়েছিলাম। গতকাল স্বপরিবারে ছুটে যাই সেখানে। বৃষ্টি মিশ্রিত বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে রওয়ানা হই বিছরাবান্দ।

আমাদের পথ দেখিয়ে নেন আমার স্নেহভাজন সিরাজ উদ্দিন তফাদার। যার কাছ থেকে প্রথম বিছরাবান্দের গল্প শোনেছিলাম। তিনি তার বাবার চাকুরির সুবাদে শমসের নগর চা বাগানেই বেড়ে উঠেছিলেন। বাগানের আদ্যোপান্ত তার নখদর্পনে।

আমরা গাড়িতে চড়ে বাগানের আঁকাবাকা পথ পেরোতে থাকি। দুইধারে সবুজের সমারোহ। এক দিকে চা বাগান অন্য দিকটায় শমসের নগর বিমান ঘাটি এলাকা। সেখানে অানারস,কাঠাল বাগান।

আমরা পাহাড়ের উঁচু নিচু পথ পেরিয়ে গন্তব্যের কাছাকাছি গেলেও কিছুটা পথ এগুতে পারিনি। কর্দমাক্ত মাটি ও সরু পথ। তাই গাড়ি থেকে নেমে হাঁটতে শুরু করলাম। পিচ্ছিল মাটিতে সাবধানে পা চালিয়ে গন্তব্যে গিয়ে পৌছলাম।

গন্তব্যে পৌছার পর সবার চোখে মুখে কি যে আনন্দ তা না দেখলে বুঝা মুশকিল। পাহাড় ঘিরে চতুর্দিকে চা বাগান, পাহাড়ের ঢালু বেয়ে বিছরাবান্দ লেক। লেকের পাশে সৌন্দর্য মন্ডিত ঘাট। স্বচ্ছ শীতল পানি। পানিতে নামার ইচ্ছে জাগলেও প্রস্তুতি না থাকার কারনে কেউ নামিনি তবে আমরা সকলে হাত ও পা ভিজিয়েছি।

আমাদের সাথে দূর দূরান্তের কিছু দর্শনার্থীরা এসেছেন তারাও সৌন্দর্য উপভোগ করেছেন মনের আনন্দে। টিপটিপ বৃষ্টিতে ছবি তোলা লেকের বেঞ্চে বসে প্রকৃতি দেখা সত্যিই অন্যরকম অনুভূতি।

কিছুক্ষণ থাকার পর বৈরী আবহাওয়ার কারনে সন্ধ্য নামার আগেই আমরা গাড়িতে চড়ে বসি। আবার বাগানের সবুজ দেখে দেখে প্রকৃতি থেকে বিদায় নেই শহরের ইট সুড়কির বন্দী জীবনে।

লেখক: শাহাদত বখত শাহেদ,

কবি, লেখক ও সাহিত্যিক।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত