রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

উপাধ্যক্ষ শহীদ এমপিকে হত্যার নামে উড়োচিঠি দিয়ে জৈনক ব্যক্তিকে ফাঁসানোর চেষ্টা
সংবাদ সম্মেলনে ভূক্তভোগী

সংবাদ সম্মেলনে ভূক্তভোগী



নিজস্ব প্রতিবেদক::

মৌলভীবাজার-৪ আসনের সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ কে হত্যার হুমকিস্বরুপ উড়োচিটিতে মো. তাজুল ইসলাম (লুলু) কে ষড়যন্ত্রমূলক ফাসানো চেষ্টার প্রতিবাদে মৌলভীবাজার প্রেসক্লাবে বুধবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভূক্তভোগী তাজুল ইসলাম।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত কয়েক দিন থেকে বেশ কয়েকটি মূদ্রণ, অনলাইন সহ সোশ্যাল মিডিয়াতে আমাকে ও আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নাম জড়িয়ে একটি সংবাদ আমার দৃষ্টিগোচর হয়। ওই সংবাদে আমাকে ও আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মৌলভীবাজার হিজামা এন্ড রুকিয়া সেন্টারকে জড়িয়ে একটি চিঠির বরাত দিয়ে মৌলভীবাজার-৪ আসনের সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদকে একটি উড়োটিঠিতে তাকে হত্যা ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে মর্মে জানানো হয়। সেই চিঠিতে হত্যার ষড়যন্ত্রকারী হিসেবে আমাকে ও হত্যার পরিকল্পনার স্থান হিসেবে আমার প্রতিষ্ঠান মৌলভীবাজার হিজামা এন্ড রুকিয়া সেন্টার এর নাম উল্লেখ করা হয়েছে। যা ভিত্তিহীন ও ষড়যন্ত্রমূলক একটি উড়োচিঠি। আমাকে ফাঁসানোর জন্য শত্রুপক্ষ এই ষড়যন্ত্র করছে।

তিনি আরোও বলেন, ওই চিঠিতে বলা হয়েছে আমি আই.এস.আই এর সংগঠক। যাহার সাথে আমি ও আমার পরিবারের কোন সম্পর্ক নেই। কিন্তু চিঠির ভিতরে আমার নাম ব্যবহার করে একজন সংসদ সদস্যকে হত্যার হুমকি প্রদানের পর আমি সামাজিক ও আইনগতভাবে ভোগান্তির শিকার হচ্ছি। পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থা আমাকে নানাভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হচ্ছে। এতে আমি ও আমার পরিবার মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়ছি। যার কারণে আমি সামাজিকভাবে প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছি।

এসময় তিনি বলেন, আমার প্রশ্ন হচ্ছে চিঠির প্রেরক সুজন মিয়া নামের জনৈক ব্যক্তি উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদকে হত্যার ষড়যন্ত্রের বিষয়টি জেনেছেন তাহলে তিনি ডাক বিভাগের মাধ্যমে চিঠি না পাঠিয়ে মুঠোফুনে অথবা সরাসরি সংসদ সদস্যকে ষড়যন্ত্রের বিষয়টি জানাতে পারতেন।

এসময় তিনি আরোও বলেন, যারা আমাকে বিশ্বব্যাপী চরম নিন্দিত, ঘৃণিত ও মুসলমানদের জন্য ক্ষতিকর ও বিতর্কিত আই.এস.আই এর সংগঠক বানিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ করতে চাচ্ছেন তাদের প্রকৃত রহস্য উদঘাটনের দাবী জানাচ্ছি। পাশাপাশি উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ ও আমাকে নিয়ে ষড়যন্ত্রের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

উল্লেখ্য, গত ১৩ জুন ডাকযোগে উপাধ্যক্ষ ড. আব্দুস শহীদকে হত্যার ষড়যন্ত্রের একটি চিঠি শ্রীমঙ্গলস্থ মিশন রোডের বাসার ঠিকানায় আসে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত