বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

দ্বিতীয় শিফটের সম্মানী ভাতার দাবিতে মৌলভীবাজারে পলিটেকনিক শিক্ষকদের কর্মবিরতী



ডিএমবি ডেস্ক::

২য় শিফটের সম্মানী ভাতার দাবিতে মৌলভীবাজার পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা গত ৬ দিন যাবত কর্মবিরতী পালন করছেন।

বুধবার দুপুরে শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা মৌলভীবাজার পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের প্রশাসনিক ভবনের সামনে কর্মবিরতী পালন করেন।

ফুড বিভাগের প্রধান এ কে এম খাদেমুল বাশার এর সভাপতিত্বে ও ইশতেয়াক আহমদ এর পরিচালনায় এসময় উপস্থিত ছিলেন, ইমতেয়াজ আহমদ চৌধুরী, তারনুমা আহমেদ, রেজাউল করিম ও নাসির উদ্দিন সহ শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী বৃন্দ।

জানা যায়, বর্তমান সরকারের কারিগরি শিক্ষার প্রসার এবং এর সার্বিক মান উন্নয়নের বহুমুখী কার্যক্রম গ্রহণ করেছেন । একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় কারিগরি শিক্ষার হার ২০২০ সালে ২০% ২০৩০ সালে ৩০% এবং ২০৪১ সালে ৫০% উন্নীত করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে । এতে অল্প সময়ে শুধুমাত্র এক শিফট শিক্ষা কার্যক্রম দ্বারা লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা যেমন অসম্ভব তেমনি নতুন করে জনবল নিয়োগ করাও সরকারের জন্য অত্যন্ত ব্যয়বহুল ও সময় সাপেক্ষ তাই কারিগরি প্রতিষ্ঠানে বিদ্যমান কর্মরত জনবল দ্বারা সরকারের ভিশন বাস্তবায়ন লক্ষে ২য় শিফট শিক্ষা কার্যক্রম চালু করা হয় ।

শিক্ষকরা জানান, সরকারের এই লক্ষ্য মাত্রা অর্জনের জন্য শিক্ষক কর্মচারীবৃন্দ অমানবিক পরিশ্রম করে ২য় শিফট কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন । আমরা আর ২য় শিফটের সকল প্রকার কার্যক্রম হতে অব্যাহতি চাচ্ছি। কারন ২০১৫ সালের পে স্কেলের অনুসারে আমরা ২০১৮ সালের জুন মাস পর্যন্ত মূল বেতনের ৫০% হারে ভাতা পেয়ে এসেছি । কিন্তু ২০১৮ জুলাই মাসে অর্থমন্ত্রলায়ের আদেশ জারির মাধ্যমে ২০০৯ সালের পে স্কেলের মূল বেতনের ৫০% নির্ধারন করা হয় ।

এদিকে ২০১৮ সালের জুলাই মাসের জারিকৃত আদেশের বিরুদ্ধে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে কর্মরত শিক্ষক ও কর্মচারীরা প্রতিবাদ অব্যহত রাখে এবং আদেশটি কারিগরি শিক্ষার অধিদপ্তরাধীন সকল প্রতিষ্ঠানেরর ২য় শিফট পরিচালনার সাথে সম্পৃক্ত শিক্ষক কর্মচারিগনের জন্য সম্মানজনক না হওয়ায় সকল শিক্ষক কর্মচারী উক্ত সম্মানী গ্রহন করতে সম্মত নয় ।

তারা আরো জানান, অদ্যাবধি চলমান ২য় শিফটের ভাতার সন্তোষজনক সমাধান না হওয়াতে ১ আগষ্ট হতে আমরা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক কর্মচারী ও কর্মকর্তা গণ ২য় শিফটের সকল কার্যক্রম হতে অবিরাম কর্ম বিরতি কর্মসূচি পালন করছে ।
অবশেষে আমরা আশা করি দেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থে সরকার ২য় শিফট ভাতার জটিলতা নিরসনে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহন করবে এবং তা পর্যায়ক্রমে ১০০% উন্নিত করার জোড় দাবী জানান।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত