শনিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বৃটেনের প্রবীণ মুরব্বী হারিছ মিয়ার মৃত্যুতে একাটুনা ইউনিয়ন ফাউন্ডেশনের শোক



লিমন ইসলাম:: 
মৌলভীবাজার জেলা সদরের কচুয়া গ্রামের বিশিষ্ট সমাজসেবক বৃটেনের কাডিফের হিথের মাঊন্ট বাটেন ক্লোজ এর বাসিন্দা কাডিফের এক সময়ের বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী  কমিউনিটি ব্যাক্তিত্ত ও  প্রবীণ মুরব্বী মৌলভীবাজার একাটুনা ইউনিয়ন ফাউন্ডেশনের অন্যতম উপদেষ্টা আলহাজ্ব মোহাম্মদ হারিছ মিয়ার মৃত্যুতে মৌলভীবাজার একাটুনা ইউনিয়ন ডেভেলপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের সকল প্রতিষ্ঠাতা ট্রাষ্টিদের পক্ষ থেকে বৃটেনে বাংলাদেশের সাবেক হাইকমিশনার ৭১ এর বীর মুক্তিযোদ্ধা ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা গিয়াস উদ্দিন মনির. একাটুনা ফাউন্ডেশনের অন্যতম উপদেষ্টা প্রবীণ মুরব্বী ও কমিউনিটি লিডার আলহাজ্ব গোলাম মোহাম্মদ মোস্তফা. একাটুনা ইউনিয়ন ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাষ্টি বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী আব্দুল লতিফ কয়সয়. একাটুনা ইউনিয়ন ফাউন্ডেশনের প্রজেক্ট চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মকিস মনসুর. একাটুনা ইউনিয়ন ফাউন্ডেশনের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম সিরাজ. জেনারেল সেক্রেটারি সেলিম রেজা তরফদার ও ট্রেজারার মোহাম্মদ মুজিব মনসুর সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ এক শোকবার্তায় কাডিফের কমিউনিটি ব্যাক্তিত্ত ও  প্রবীণ মুরব্বী মৌলভীবাজার একাটুনা ইউনিয়ন ফাউন্ডেশনের অন্যতম উপদেষ্টা আলহাজ্ব মোহাম্মদ হারিছ মিয়ার মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোকাবহ পরিবারবর্গের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন সহ মরহুমের আত্তার মাগফেরাত কামনা করে বলেন আলহাজ্ব মোহাম্মদ হারিছ মিয়া একজন ভালো মানুষ ছিলেন।
তিনি এলাকার বিভিন্ন মসজিদ মাদ্রাসা ও স্কুলে সহযোগিতা করা সহ বিভিন্ন সমাজসেবাকমূলক কাজ করে গেছেন  তার মৃত্যুতে কাডিফ ও এলাকার অপূরনীয়  ক্ষতি হয়েছে বলে অভিমত ব্যাক্ত করেছেন।
এখানে উল্লেখ্য যে  কাডিফের কমিউনিটি ব্যাক্তিত্ত ও  প্রবীণ মুরব্বী মৌলভীবাজার একাটুনা ইউনিয়ন ফাউন্ডেশনের অন্যতম উপদেষ্টা আলহাজ্ব মোহাম্মদ হারিছ মিয়া গত  ২২ শে অক্টোবর সকাল ১০ ঘটিকায় কাডিফের  হিথ হাসপাতালে ইন্তেকাল ফরমাইয়াছেন.(ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)  স্থানীয় জনসাধারন ছাড়াও  বৃটেনের বিভিন্ন শহর থেকে আগত  প্রচুরসংখ্যক লোকের উপস্তিতিতে গত  ২৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার বাদ জুহুর কাডিফ শাহজালাল মস্ক এন্ড ইসলামিক কালচারাল সেন্টারে অনুষ্ঠিত মরহুমের নামাজে জানাজার ঈমামতি করেন  শাহজালাল মসজিদের খতিব মাওলানা কাজী ফয়জুর রহমান। জানাজার পূবে মরহুম মোহাম্মদ  হারিছ মিয়ার জীবনের বিভিন্ন কাজ নিয়ে আলোচনা ও দোয়া কামনা করে বক্তব্য রাখেন কাডিফের প্রবীণ মুরব্বী ও কমিউনিটি ব্যাক্তিত্ত আলহাজ্ব গোলাম মোহাম্মদ মোস্তফা. কাডিফের  সাংবাদিক মোহাম্মদ মকিস মনসুর ও মরহুমমের বড় ছেলে ডাঃ পারভেজ হারিছ পিকুল।
জানাজার পর মোনাজাত পরিচালনা করেন কারী শাহ মোহাম্মদ তসিলম. পরে উনাকে হিলি কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে।  মহান আল্লাহ যেনো উনাকে জান্নাতুল ফেরদৌস নসিব করেন, এই দোয়া করার জন্য উনার পরিবার এর পক্ষ থেকে সবার প্রতি বিনীতভাবে অনুরোধ জানানো হয়েছে। মৃত্যুকালে তিনি  স্ত্রী ও ৫ ছেলে সহ অসংখ্য শুভাকাঙ্ক্ষী ও আত্তীয়সজন রেখে গেছেন।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত