বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে বাবার হতে মেয়ে ধর্ষণ



নিজস্ব প্রতিবেদক:: কমলগঞ্জের ইসলামপুর ইউনিয়নের উত্তর কাঠালকান্দি গ্রামে বাবার হাতে মেয়ে ধর্ষণে ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি জানাজানির পর ধর্ষক বাবা আফাজ আলীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী।

ধর্ষিতা শিশুকে চিকিৎসার জন্য মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা যায়, উত্তর কাঁঠালকান্দি গ্রামের আফাজ আলীর স্ত্রী শেফালী বেগম স্বামীর কাছে ৩টি মেয়ে রেখে গৃহকর্মী হিসেবে বিদেশ গিয়েছেন। স্ত্রী দেশে না থাকায় মঙ্গলবার রাতে নিজের কিশোরী মেয়েকে ধর্ষণ করেন আফাজ আলী। এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, মেয়েটিকে তার বাবা ধর্ষন করে ভোরে ঘর থেকে বেরিয়ে যান। সকালে ঘুম ভাংলে বিছানা থেকে উঠতে না পেরে চিৎকার চেঁচামেছি করলে আশপাশের লোকজন এসে মেয়েটির ধর্ষনের ঘটনা শুনেন।

পরে তারা পার্শ্ববর্তী আদমপুর ইউনিয়নের পূর্ব জালালপুরে মেয়েটির নানার বাড়িতে খবর দিলে নানা এসে তাকে উদ্ধার করে নিজ বাড়িতে নিয়ে যান। নিয়ে যাবার পূর্বে মেয়েটি সবার সামনেই বাবার অপকর্মের কথা বলে।  খবর পেয়ে বাবা ওই বাড়িতে গেলে সেখানেই বাবার সামনেই কথাগুলো বলে। একপর্যায়ে বাবা চলে যেতে চাইলে  তাকে আটক করে পুলিশের  সোপর্দ করে এলাকাবাসি। ধর্ষিতা মেয়েটি বর্তমানে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতাল চিকিৎসাধিন রয়েছে।

মেয়েটির মামা নুরুল হক ভুইয়া ঘটনার বর্ণণা দিয়ে বলেন সংবাদ পেয়ে আমার ভাগনিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাই।

কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আরিফুর রহমান বলেন, মেডিকেল রিপোর্ট ও তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করা হবে, মৌখিক অভিযোগের ভিত্তেতে আফাজ আলীকে আটক করা হয়েছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত