বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

গণধর্ষনের শিকার দুইবান্ধবী: আটক ৩ আসামীর স্বীকারোক্তি, পলাতক ২



নিজস্ব প্রতিবেদক::
মৌলভীবাজারে কলেজ থেকে ফিরার পথে দুই বান্ধবীকে গণধর্ষনের ঘটনায় আটককৃত ৩ আসামী আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্ধি দিয়েছেন। বুধবার সকালে আটককৃত ৩ আসামীকে মৌলভীবাজার চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়। আদালতে ৩ আসামীই এঘটনায় জড়িত বলে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্ধি দিয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আলমগীর হোসেন।
আটকৃতরা হলেন- উত্তর জগন্নাথপুর এলাকার ইসলাম মিয়ার ছেলে মুন্না মিয়া (২৫), আদরিছ মিয়ার ছেলে আকাশ মিয়া (২৫), ছুরুক মিয়ার ছেলে হুমায়ুন মিয়া (২৩)।
এঘটনায় দুই আসামী পলাতক রয়েছে। তারা হলেন- উত্তর জগন্নাথপুর এলাকার আব্দুল মুকিত (২২) ও ছুরুক মিয়ার ছেলে হাসান মিয়া (১৯)।
জানা যায়, গত মঙ্গলবার কলেজ থেকে বাড়ি ফেরার পথে প্রেসক্লাবের সামনে এসে একটি সিএনজিতে উঠলে কিছুক্ষণ পর ৪ জন ধর্ষক সিএনজি অটোরিক্সায় উঠে। সিএনজির পর্দা টেনে দুই বান্ধবীর হাত বেঁধে ফেলে। তাদেরকে মৌলভীবাজারের শেখ রাসেল ইনডোর ষ্টেডিয়ামের দক্ষিন পাশে জঙ্গলের নির্জনস্থানে নিয়ে যায়। সেখানে তাদের মারধর করে মোবাইল ও টাকা ছিনিয়ে নিয়ে তাদেরকে পালাক্রমে ধর্ষণ করা হয়।
পুলিশ জানায়, দুই ভিকটিমকে কৌশলে ডেকে নিয়ে তাহাদের ইচ্ছার বিরুদ্ধে পালাক্রমে ধর্ষন করা হয়। তাদের হাল্লা চিৎকারে স্থানীয় লোকজন আসলে ধর্ষণকারীরা দৌড়াইয়া পালাইয়া যায়। মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হইয়া ভিকটিমদ্বয়কে উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন এবং ঘটনার সাথে জড়িত আলামত জব্দ করে পুলিশ।
এবিষয়ে মৌলভীবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আলমগীর হোসেন বলেন, মৌলভীবাজারদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত আছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামীরা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। ভিকটিম বাদী হয়ে মৌলভীবাজার মডেল থানায় (মামলা নং-১৩, তাং-১৪/০১/২০২০) মামলা দায়ের করেছেন। আসামীদের আদালতে সোপর্দ করে হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত