বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মৌলভীবাজারে আইনজীবী সহকারির উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় গ্রেফতার-১



ডেস্ক রিপোর্ট:: মৌলভীবাজার জেলার আইনজীবী সহকারি উপর হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত একজন আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুর অনুমান ১২:০০ ঘটিকায় সদর উপজেলাধীন ৪নং আপার কাগাবলা ইউনিয়নের শিমুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা মামলার এজহার ভূক্ত ৪নং আসামী ফিরুজ মিয়াকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মৌলভীবাজার শহরে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করেছে মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশ। থানার এসআই মোঃ গিয়াস উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিগত ০৮.০১.১৯ইং তারিখ বুধবার রাত অনুমান রাত ০৮: ঘটিকায় পশ্চিম শিমুলিয়া জামে মসজিদ হইতে এশার নামাজ পড়ে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে মৌলভীবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির সহকারি সাকিবুর রহমান মেরাজের উপর বর্বর হামলা চালায় সংবদ্ধ সন্ত্রাসীরা।

গুরুত্বর আহত হয়ে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পর আইনজীবী সহকারী মেরাজ বাদী হয়ে রিংকন, জামিল, রিজু, ফিরোজ, কটু সহ অজ্ঞাতনামা ২/৩ জন এর বিরুদ্ধে মৌলভীবাজার মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।  থানার মামলা নং-০৬

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২৯ অক্টোবর কাগাবলা ইউনিয়নের শিমুলিয়া গ্রামে হামলাকারীরা সংজ্ঞবদ্ধ সন্ত্রাসীদের নিয়ে দ্রুত বিচার মামলার বাদী সেলোয়ারা বেগম-আবুবক্কর মিয়া,আমির আলী,খাজা মিয়া, রুমি মিয়া, আবিদ আলী, মিলাদ মিয়া, নান্টু মিয়া, নীলু বেগম, সহ অনেকের বাড়ীঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটায়। এ ঘটনায় সেলোয়ারা বেগম বাদী হয়ে ৬১ লক্ষ টাকা ক্ষতি পূরণের জন্য ৩৬জন আসামীর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ২০/৩০ জনের বিরুদ্ধে বিগত ১৮ সালের ১০ জানুয়ারি তারিখে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট দ্রুত বিচার আদালতে পিটিশন মামলা নং ০১/১৮ইং (সদর) দায়ের করেন। মামলাটি বর্তমানে (CID) তে তদন্তনাধীন রয়েছে। উক্ত মামলার নিযুক্তীয় আইনজীবী বিল্লাল হোসেন বলেন মামলাটি সঠিকভাবে পরিচালনা না করার জন্য আমার সহকারির উপর সংজ্ঞবদ্ধভাবে স্থানীয় এসব সন্ত্রাসীরা হামলা চালায়, প্রশাসনের তৎপরতায় এজহারভূক্ত আসামী ফিরোজ মিয়াকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়েছে। আশা করি শিগ্রি অন্য আসামীদের গ্রেফতার করা হবে। আইনজীবী ইমরান মিয়া লস্কর ও সালেহ আহমেদ রিপন বলেন আমরা আদালতে ন্যায় বিচারের স্বার্থে এসব সংজ্ঞবদ্ধ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সর্বাত্নক আইনি প্রচেষ্টা চালিয়ে যাব।

মৌলভীবাজার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন এরুপ হামলার ঘটনাটি খুবই মর্মান্তিক। আসামীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রয়েছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত