মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বরিশালে সন্দেহভাজন প্রথম করোনা রোগী হাসপাতালে




বরিশালে প্রথম করোনা আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ভোলার বাসিন্দা এক কাভার্ডভ্যান চালক।

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে প্রথম রোগী হিসেবে ভর্তি হয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার বিকেলে হাসপাতালে এসে ভর্তি হলে করোনা আক্রান্ত সন্দেহ হওয়ায় চিকিৎসকরা ওই রোগীকে মেডিসিন ওয়ার্ড থেকে করোনা ইউনিটে হস্তান্তর করেন।

বিকেল ৪ টার দিকে জ্বর,সর্দি কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে চিকিৎসার জন্য আসে সে। চিকিৎসক তাকে পুরুষ মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি করে। কিন্তু ওয়ার্ডে যাওয়ার পর সেখানকার চিকিৎসকরা রাসেলের রোগের লক্ষণ করোনার সঙ্গে বেশিরভাগ মিলে যাওয়ায় ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের পরামর্শে করোনা ইউনিটে নেয়।

এ বিষয়ে মেডিসিন ওয়ার্ডের চিকিৎসকরা বলেন, ওই রোগীর ৫টি লক্ষণ করোনার সঙ্গে মিলে যাওয়ায় ওয়ার্ডের অন্যান্য রোগীদের কথা বিবেচনা করে তাকে করোনা ইউনিটে পাঠানো হয়েছে। বলা যায় করোনা সন্দেহেই তাকে নিয়ে এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। তবে পরীক্ষা নিরীক্ষা না হওয়া পর্যন্ত করোনা রোগী বলা যাচ্ছে না। করোনা ইউনিটে নেয়ার পর তার প্রয়োজনীয় পরীক্ষা করা হবে।

রোগীর স্ত্রী বলেন, মঙ্গলবার সপরিবারে চট্টগ্রাম থেকে ভোলায় আসেন। তার স্বামী একটু অসুস্থ বোধ করায় ভোলায় না দেখিয়ে সরাসরি বরিশালে এসে ভর্তি করি।

তিনি বলেন অনেক আগে থেকেই তার লিভারে সমস্যা আছে। সে কারণেই একটু শ্বাসকষ্ট ও জ্বর রয়েছে। চিকিৎসকের পরামর্শে অনেকগুলো পরীক্ষা করানো হয়েছে।

হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. জসিম উদ্দিন বলেন, আইইডিসিআর এর ঘোষণা ছাড়া কাউকে আমরা করোনা রোগী বলতে পারি না। তবে সিদ্ধান্ত হয়েছে তাকে আপাতত করোনা ইউনিটি রেখে চিকিৎসা দেয়া হবে।

তিনি বলেন, ঢাকায় এ ব্যাপারে কথা বলা হয়েছে। আইইডিসিআর থেকে টিম এসে রোগীর নমুনা সংগ্রহ করবে। তার পরই বলা যাবে তার করোনা সংক্রামণ হয়েছে কি না।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত