শুক্রবার, ৯ এপ্রিল ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ চৈত্র ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মেয়ে, নাছরিন আক্তার বিথী.।




মেয়ে,
তুমি মোটা হলে,
লোকে তোমায় রাক্ষসী বলে চিনে।

মেয়ে,
তুমি চিকন হলে,
লোকে তোমায় গরীবের মেয়ে বলেই জানে।

মেয়ে,
তুমি চঞ্চলা হলে
লোকে তোমায় বেয়াদব,নিলজ্জ কতকিছুই বলে।

মেয়ে,
তুমি সল্পভাষী,চুপ চাপ হলে,
এই লোকেই তোমায় অহংকারী বলে।

মেয়ে,
তুমি নাচঁতে জানলে নর্তকী।
হাসতে জানলে বাজারী।
গাইতে যদি পারো
তবে তো তুমি পুরোই বেধর্মী৷

মেয়ে,
তুমি ফর্সা হলেই,
লোকে বলে নাইট ক্রীম সুন্দরী।

তুমি কালো হলে,
লোকে তোমায় নিয়ে করে হাসা-হাসি
আর ছলছাতুরী।

মেয়ে,
তুমি শর্ট ড্রেস পড়লে বেহায়া নারী ।
তুমি লং ড্রেস পড়লে নামের পর্দাওয়ালি।

মেয়ে,
তোমার চুল কার্ট করে ঘাড়ে ফেলা দেখলে
লোকে বলে তুমি মেমসাহেব।
চুল বড় থাকলে
আর্নক্যালচারেড, গাইয়া।

মেয়ে,
তুমি চুপচাপ স্বয়ে গেলে লক্ষিমন্ত্ব।
তুমি না সয়ে বলে গেলে
বেহায়াপনায় ভরপুর কোন যন্ত্র৷

আর ডিভোর্সি হলেতো কোন কথাই নেই
কত ধিক্কা আর কত অপমান তারতো কোন শেষ নেই।
ভাল মেয়ে হলে ডিভোর্স হয় নাকি??
কে করবে বিয়ে এমন মেয়েকে!!

মেয়ে,
তুমি সইতে জানলেই বেচেঁ গেলে মরার মত,
সুখ ততটুকুই রবে সহে যাবে যত।

মেয়ে,
তুমি সত্যিই অদ্ভুত,
তোমার বিষয় বলি যদি;
তুমি বউ তুমিই মা, এই প্রয়োজন ভেদে
তুমিই আবার হয়ে যাও নারীবাদী।🖤

ছবির কারিগরঃ SaZzad HosSain Shimul
লেখকপরিচিতি ;-
নাছরিন আক্তার বিথী.
সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক।
বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ
কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত