Thursday, January 18, 2018

বাবার সাথে মেয়েদের সম্পর্কই বলে দেবে স্বামীর সঙ্গে সম্পর্ক

লাইফস্টাইল ডেস্ক::প্রায় সময়ই মেয়েরা বলে থাকে তুমি বাবার মতো, তোমার ওটা বারার মতো, তোমার এই জিনিসটা বাবার মতো ইত্যাদি।

আপনি কী জানেন কেন কথায় কথায় বাবার প্রসঙ্গ টেনে আনে মেয়েরা?

এ বিষয়ে মনোবিদরা বলছেন, বিবাহিত জীবন কেমন হবে, স্বামী সঙ্গে সম্পর্ক কেমন যাবে এর অনেকটাই নির্ভর করে বাবার সঙ্গে মেয়ের সম্পর্কের উপর। এমনটাই মনোবিদরা জানাচ্ছেন।

এ ব্যাপারে ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিস্ট জেনিফার ক্রমবর্গ জানাচ্ছেন, বাবা মেয়েদের জীবনের প্রথম বিপরীত লিঙ্গের মানুষ। তাই বাবার সঙ্গে সম্পর্ক কেমন তা অনেকটাই নির্ধারণ করে দেয় ভবিষ্যতে কোন ধরনের সঙ্গীর দিকে সে ঝুঁকবে। বাবার সঙ্গে সম্পর্ক গভীর হলে মেয়েরা যেমন নিজেদের অজান্তেই এমন পুরুষের দিকে ঝোঁকে যাদের সঙ্গে বাবার চারিত্রিক মিল রয়েছে। কখনো কখনো শরীরিক গঠনের মিলও তাদের আকৃষ্ট করে। একই ভাবে বাবা-মেয়ের ‘রিলেশনশিপ প্যাটার্ন’-এর প্রচ্ছন্ন ছায়াও দেখা যায় তাদের রোম্যান্টিক সম্পর্কে।

১. বাবার সাথে গভীর ভালবাসার সম্পর্ক: নিজের বাবার সাথে সুসম্পর্ক হলে প্রায় মেয়েরাই সকল পুরুষের মধ্যে বাবাকে খুঁজে ফেরেন। স্বামী তাদের নিরাপত্তা দেবে, খেয়াল রাখবে এমনটিই প্রত্যেক নারী আশা করেন। এক্ষেত্রে বাবার সাথে স্বামীকে তুলনা করার প্রবণতা দেখা যায়।

২. ভালবাসার অভাব, অত্যাচারী, রাগী: বাবা এমন হলে মেয়েরা বাবার প্রতি প্রচণ্ড ঘৃণা নিয়ে বড় হয়। কোনো পুরুষকেই তারা সহজে বিশ্বাস করতে পারে না। আঘাত পাওয়ার ভয়ে নিজেদের ভালবাসা, দুর্বলতা, আবেগ প্রকাশ করে না। এরা এমন কাউকে জীবন সঙ্গী হিসেবে পেতে চায় যাদের চরিত্র এদের বাবার থেকে আলাদা হবে।

৩. বাবা থেকেও নেই: এক্ষেত্রে বাবারা মেয়েদের জীবনে উপস্থিত থেকেও থাকে না। সম্পর্কের গভীরতা, উষ্ণতা থাকে না। এসব মেয়েরা ভেবে নেয় সব পুরুষই এক রকম। কারো কাছ থেকেই কিছু দাবি করে না তখন এরা।

৪. বাবা জীবনে অনুপস্থিতি থাকলে: বাবা যদি আলাদা থাকেন কিংবা দূরে থাকেন এক্ষেত্রে মেয়েদের মধ্যে প্রচণ্ড হারে নিরাপত্তাহীনতা তৈরি হয়। এ কারণে এই মেয়েরা পুরুষের সঙ্গ পাওয়ার জন্য চরম ভাবে মরিয়া হয়ে ওঠে। শিশুকালে অনেকটা বাবাকে কাছে পাওয়ার অপেক্ষায় কাটে। ফলে একা হয়ে যাওয়ার ভয়ে বার বার সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে এই মেয়েরা।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত

সর্বশেষ সংবাদ

January 2018
M T W T F S S
« Dec    
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031