Friday, May 25, 2018

ভয়াবহ তুষারপাতে বিপর্যস্থ হয়ে পড়েছে ওয়েলস সহ সমগ্র বৃটেন

মকিস মনসুর: স্মরণ কালের ভয়াবহ তুষারপাতে বিপর্যস্থ হয়ে পড়েছে বৃটেনের ওয়েলসের কাডিফ সহ গোটা ইউরোপ। ভারী তুষারপাত ও তুষারঝড়ে পুরো ইউরোপজুড়ে ইতিমধ্যেই প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে ৫৫ জন। এর মধ্যে শুধু পোল্যান্ডেই নিহত হয়েছেন ২১ জন। একমাত্র ব্রিটেনেই মৃতের সংখ্যা দাড়িয়েছে ১০ এ। অল্প সময়ের ব্যবধানে মৃতের সংখ্যা এত দ্রুত বৃদ্ধি পাওয়ায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা দরিদ্র জনগষ্ঠীকে নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। সংস্থাটি জানিয়েছে, এই তুষারঝড়ে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে দরিদ্ররা। বিশেষ করে, গৃহহীন ও অভিবাসীরা। এক বিবৃতিতে সংস্থাটি আরো বলেছে, ঠান্ডা-জনিত অসুখে ভোগার সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে রয়েছেন বৃদ্ধ, শিশু ও বহুদিন ধরে অসুখে ভুগছেন বা শারীরিক অথবা মানসিক প্রতিবন্ধকতায় ভুগছেন এমন ব্যক্তিরা। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি ব্রিটেনের তাপমাত্রা নেমে এসেছে মাইনাস ২২ ডিগ্রি ফারেনহাইটে। ভারী তুষারপাতের সাথে তুষার ঝড় ও প্রচন্ড ঠান্ডায় লন্ডনের অনেক বাসাবাড়ীর পানির পাইপ ফ্রিজ হয়ে পানি সরবরাহ বন্ধ হয়ে গিয়েছে। ব্রিটিশ গ্যাসসহ বিভিন্ন হেম কেয়ার সার্ভিস কর্মীরা বিপদজনক এই আবহাওয়ার মধ্যেও পানি সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে আপ্রান চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এই ভারী তুষারপাতের কারনে ইউরোপের বিভিন্ন আঞ্চলিক সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গিয়েছে। এসব অঞ্চলের ট্রেন ও বিমান চলাচল স্থগিত রাখা হয়েছে। শীতের তীব্রতার কারণে ব্রিটেনের শতাধিক স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। টানা তুষারপাতে ব্রিটেনের জীবনযাত্রা বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। জারি করা হয়েছে সর্বোচ্চ আবহাওয়া সতর্কাবস্থা। লন্ডনের হিথ্রো, সিটি এয়ারপোর্ট ও এ্যাবারডিনে শতাধিক ফ্লাইট বাতিল ও তিনশ ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় ঘটেছে।পরিস্থিতি মোকাবেলায় লিংকনশায়ারে সেনাবাহিনীকে তলব করা হয়েছে। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সপ্তাহের ছুটির দিনে ৫০ সেন্টিমিটার পর্যন্ত তুষার ঝড় ইমা’র আঘাত হানার সম্ভাবনা রয়েছে।চলতি সপ্তাহের শেষ নাগাদ শীতের এই তীব্রতা অব্যাহত থাকবে বলে সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া বিভাগ। উল্লেখ্য, চলতি সপ্তাহের প্রথম থেকেই‘দ্য বিস্ট ফ্রম দ্য ইস্ট’নাম দেওয়া শৈত্যপ্রবাহে ইউরোপের জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত

সর্বশেষ সংবাদ

May 2018
M T W T F S S
« Apr    
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031