শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাষ্ট্রপতির মরদেহ বঙ্গভবনে



image_17438

ডেস্ক রিপোর্ট : রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ জিল্লুর রহমানের মরদেহ বঙ্গভবনে নেয়া হয়েছে। দুপুর সোয়া একটায় মরদেহ বহনকারী গাড়ি বঙ্গভবনে প্রবেশ করে।পরে বঙ্গভবন প্রঙ্গণে স্থাপিত মঞ্চে মরদেহ রাখা হয়।
অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ অ্যাডভোকেট কফিনে প্রথমে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শ্রদ্ধা জানান।পরে স্পিকার মরহুমের মরদেহে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। দুপুর ২টার পরে বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়া রাষ্ট্রপতির কফিনে শেষ শ্রদ্ধা জানান। এসময় বিএনপির সিনিয়র নেতারা উপস্থিত ছিলেন।তিনি পৌনে তিনটার দিকে বঙ্গভবন ত্যাগ করেন। বঙ্গভনের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়া কাছাকাছি দাঁড়ালেও তাদের মধ্যে কোনো কথা হয়নি।
এর আগে দুপুর ১২টায় রাষ্ট্রপতির মরদেহ বহনকারী বিমান শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে এসে পৌঁছায়।
বিমান বন্দরে উপস্থিত অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির মরদেহে শ্রদ্ধা জানান। দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে শোক শোভাযাত্রা সহকারে বঙ্গভবন অভিমুখে যাত্রা করে। দুপুর দেড়টায় বঙ্গববনে গার্ড অব অনার প্রদান করা হবে রাষ্ট্রপতির মরদেহে।
দুপুর ১টা ৪৫ মিনিট থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত বঙ্গভবনে অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রিসভার সদস্যবৃন্দ, সাবেক রাষ্ট্রপতিগণ, প্রধান বিচারপতি ও বিচারপতিগণ, সংসদ সদস্যগণ, ডিন অব ডিপ্লোমেটিক কোর ও কূটনীতিকবৃন্দ, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধাগণ, সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাগণ এবং বিভিন্ন শ্রেণীপেশার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ শ্রদ্ধা জানাবেন।
আত্মীয় স্বজন এবং সর্বসাধারণের শ্রদ্ধার জন্য বিকেল ৩টা থেকে ৫টা পর্যন্ত বঙ্গভবনে মরদেহ রাখা হবে।
রাত সাড়ে ৭টায় মরহুমের মরদেহ সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হবে। শুক্রবার বাদ জুমা জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। বিকেল ৩টা ৩০ মিনিটে মরহুমের মরদেহ বনানী করবস্থানে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হবে।