শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

টর্নেডোর ছোবলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া : নিহত ১০



image_17637_0

েডস্ক িরেপার্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার বাসুদেব, সুলতানপুর ও মাছিহাতা ইউনিয়ন এবং আখাউড়া উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া মাত্র ১৫ মিনিটের আকস্মিক টর্নেডোতে শিশুসহ ১০ জন নিহত ও শতাধিক আহত হয়েছে।
এ সময় বিভিন্ন গ্রামের কয়েকশ কাঁচা ঘর পড়ে যায় এবং বোরো ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়। বিভিন্ন সড়কে যানবাহনের ওপর গাছ উপড়ে পড়ে। জেলা কারাগারের পশ্চিম পাশের দেয়াল ধসে পড়ে। নিখোঁজ রয়েছে এক কারারক্ষী। টর্নেডোর পর ঢাকা-সিলেট ও ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলযোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। শুক্রবার বিকেল পাঁচটার দিকে এই ঘূর্ণিঝড় বয়ে যায়। ঘূর্ণিঝড়ে নিহতদের মধ্যে তিনজনের নাম জানা গেছে। তারা হলেন- ডলি দাস (২৫) ও লাভলি আক্তার (৩৫) ও ফাতেমা। আহত ব্যক্তিদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও আখাউড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সদর হাসপাতাল সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। আহত ব্যক্তিদের মধ্যে ৩০-৪০ জনের অবস্থা গুরুতর। তাদের ঢাকায় পাঠানোর পরামর্শ দেয়া হয়েছে। শুক্রবার বিকেল পাঁচটার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদরের বিভিন্ন স্থানে বড় আকারের শিলাবৃষ্টি পড়ে। এর কিছুক্ষণ পর টর্নেডোর তাণ্ডব শুরু হয়। সদর উপজেলার রামরাইল, মাছিহাতা, সুলতানপুর ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি গ্রামে ভয়াবহ টর্নেডো আঘাত হানে। এ সময় কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কে চলমান যানবাহনের ওপর গাছ উপড়ে পড়লে একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। বহু সিএনজিচালিত আটোরিকশাসহ বিপুলসংখ্যক গাড়ির ওপর গাছ ভেঙে পড়ে। এতে অনেক যাত্রী গুরুতর আহত হয়। গুরুতর আহত শতাধিক মানুষকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের সদর হাসপাতালসহ শহরের বিভিন্ন ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। টর্নেডোর সময় জেলা কারাগারের পশ্চিম পাশের দেয়াল ধসে পড়ে। এখন পর্যন্ত একজন কারারক্ষী নিখোঁজ রয়েছেন। ঘটনার পরপরই গ্রামবাসী, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, ফায়ার সার্ভিস হতাহতদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।
এদিকে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলায় টর্নেডোর ছোবলে অর্ধশত লোক আহত হয়েছে। বিধ্বস্ত হয়েছে দুই শতাধিক বাড়িঘর। সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক মো. আবু সাঈদ জানান, পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে ডলি, লাভলী, ফাতেমার নাম পাওয়া গেছে। বাকিদের পরিচয় মিলেনি।
খবর পেয়ে জেলা প্রশাসক নূর মো. মজুমদার , উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রিপন চাকমাসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে যান।