বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শেকড়ের সন্ধানে সিলেট লেখক ফোরাম’র কালনীর তীরে অভিযাত্রা বাউল সম্রাট শাহ আবদুল করিম সিলেটবাসীর গর্ব এবং অহংকার



Lekhok forum abdul karim-100

আন-র্জাতিক হ্যারিটেজ টাঙ্গুয়া ও বাউল কবি রাধারমনের বাড়ী জগন্নাথপুরের কেশবপুরে সাহিত্য আড্ডার রেশ যেতে না যেতেই শেকড়ের সন্ধানে সিলেট লেখক ফোরাম এর ধারাবাহিক অভিযাত্রার অংশ হিসেবে সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কালনী নদীর তীরে উজান ধল গ্রামে বাউল সম্রাট শাহ আব্দুল করিম এর বাড়ীতে ফোরাম এর উদ্যোগে অনুষ্ঠিত সাহিত্য আড্ডায় বক্তারা বলেছেন, বাউল সম্রাট শাহ আবদুল করিম সিলেটবাসীর গর্ব এবং অহংকার। আমাদের বাংলা সাহিত্য সংস্কৃতির এক অপরিহার্য নাম। উপমহাদেশের অন্যতম এ বাউল সম্রাট অত্যন- সাদামাটা জীবন যাপন করেছেন। তিনি গ্রামীণ সাহিত্য সংস্কৃতি তথা মানবতার কল্যাণে রচনা করেছেন অসংখ্য অগণিত জনপ্রিয় ও ব্যতিক্রমী গান। যেগুলো আজও গ্রাম বাংলার নারী পুরুষ ছোট বড় ধনী গরিব সকলের মুখে মুখে উচ্চারিত হতে শুনা যায়। তার সৃষ্টিধর্মী গানগুলো প্রতিনিয়ত ভাবিয়ে তুলে সত্যিকার ভাবুকদের। তিনি সুনামগঞ্জ তথা সিলেটকে বিশ্বের সাহিত্য ও সংস্কৃতির অঙ্গনে সমাদৃত করেছেন ভিন্নভাবে। তাকে জীবনের শেষ বেলাতে একুশে পদক দেয়া হয়েছে। তবে আরও আগে দিলে ভালো হতো। দেশ ও জাতি তাঁর কাছ থেকে আরও অনেক কিছু পেতো বলে আমরা মনে করি। বরেণ্য এ বাউলকে মরণোত্তর স্বাধীনতা পুরস্কারে ভুষিত করা এবং দিরাই উপজেলা সদর থেকে ধল পর্যন- রাস-াটি তাঁর নামে নামকরণ করা সময়ের দাবী। তাঁর স্মৃতি ও সৃষ্টিকল্প রক্ষার্থে নিজ বসত বাড়ীতে একটি একাডেমী ও মিউজিয়াম নির্মাণের জন্যও বক্তারা সরকারের প্রতি জোর দাবী জানান।
গত ২০ এপ্রিল শনিবার বিকেল দুইটায় বাউল সম্রাট শাহ আব্দুল করিম এর বাড়ীতে সিলেট লেখক ফোরাম সভাপতি কবি নাজমুল ইসলাম মকবুল এর সভাপতিত্বে এবং ফোরামের সিনিয়র সহ সভাপতি লেখক সাংবাদিক এডভোকেট জিয়াউর রহিম শাহিন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সাহিত্য আড্ডায় বক্তব্য রাখেন সিলেট বিভাগীয় পর্য্যায়ে স্বর্নপদকপ্রাপ্ত শ্রেষ্ঠ ইউপি চেয়ারম্যান শামছুজ্জামান সমছু, শিক্ষানুরাগী ফারুক আহমদ, বাউল সম্রাট শাহ আব্দুল করিম এর একমাত্র পুত্র শাহ নুরজালাল, ফোরামের কার্যনির্বাহী সদস্য সাংবাদিক কাজী শফিকুল ইসলাম, যুক্তরাজ্য প্রবাসী কমিউনিটি নেতা ইর্শ্বাদ আলী, গরিব সেবা ট্রাস্ট ইউকের পরিচালক সেবা আশিক, সমাজসেবী আব্দুল মছব্বির, আব্দুল মতিন, সিলেট ইয়াং স্টার এর সাধারন সম্পাদক এমদাদুল হক, আবদুল করিমের শীষ্য কন্ঠশিল্পী সৌরভ সোহেল, নজরুল ইসলাম রানা, আপেল মাহমুদ, ইসলামিক টিভির সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি আমিনুল হক প্রমূখ।
সাহিত্য আড্ডায় মুল প্রবন্ধ পাঠ করেন, এডভোকেট জিয়াউর রহিম শাহিন।
সঙ্গীত পরিবেশন করেন, কন্ঠশিল্পী সৌরভ সোহেল, নজরুল ইসলাম রানা, আপেল মাহমুদ।
উল্লেখ্য লেখক ফোরামের অভিযাত্রী দল সকাল দশটায় সিলেট শহর থেকে রওয়ানা হয়ে বেলা একটার দিকে দিরাই উপজেলা সদরে পৌছলে সেখানে অভ্যর্থনা জানান আবদুল করিমের হাতে গড়া কন্ঠশিল্পী নজরুল ইসলাম রানা ও আপেল মাহমুদ। পরে ঐতিহাসিক কালনী নদীর তীরে ধল গ্রামে পৌছলে সেখানে অভ্যর্থনা জানান বাউল সম্রাট শাহ আব্দুল করিম এর একমাত্র পুত্র শাহ নুরজালাল ও সেখানে পুর্ব থেকে অপেক্ষমান ফোরামের কার্যনির্বাহী সদস্য সাংবাদিক কাজী শফিকুল ইসলাম এবং ইসলামিক টিভির সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি আমিনুল হকসহ স’ানীয় গ্রামবাসী ও বাউল সম্রাটের শুভানুধ্যায়ীরা।
পরিশেষে ফোরাম নেতৃবৃন্দ ও অতিথিবৃন্দ বাউল সম্রাটের কবর জিয়ারত শেষে তার অর্জিত পদকসমুহ, ব্যবহারী জিনিসপত্র এবং স্মৃতিময় স’ান পরিদর্শন করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি