মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কুলাউড়ায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বীজ ও সার বিতরণ



kulaura sar bitoron

কুলাউড়া প্রতিনিধি : কুলাউড়া উপজেলা পরিষদেও চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন বলেছেন, জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার কৃষি বান্ধব সরকার। দেশের ৮০ থেকে ৯০ ভাগ মানুষ কৃষি কাজ করে। কৃষকের উন্নয়ন ছাড়া দেশের উন্নয়ন করা সম্ভব নয়। তাই সরকার কৃষিতে আমুল পরিবর্তন করার লক্ষে কৃষিকাজের বিভিন্ন উপকরন সহজলভ্যে কৃষকদের দৌড়গোড়ায় পৌছাতে বাস্তবমুখী পরিকল্পনা গ্রহন করেছে। তিনি সরকারের প্রদত্ত বিনামূল্যের সার ও বীজ ক্রয় বিক্রয় না করে সঠিক ভাবে ব্যবহারের মাধ্যমে অধিক ফসল উৎপাদানের আহবান জানান। গতকাল ২২ এপ্রিল সোমবার খরিফ-১/১৩’ মৌসুমে উপকারী আউশ প্রনোদনা প্যাকেজের আওতায় কুলাউড়া উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি সমপ্রসারন অধিদপ্তরের উদ্যোগে আয়োজিত উদ্বোধনী বিতরন অনুষ্টানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। 
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামছুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে ও উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা জাকির হোসেনের পরিচালনায় অনুষ্টিত অনুষ্টানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও ভুকশিমইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রেনু, কুলাউড়া প্রেসক্লাব সম্পাদক মোঃ খালেদ পারভেজ বখ্‌শ, পৌর কাউন্সিলর ফয়জুর রহমান ফুল। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কুলাউড়া উপজেলা কৃষি অফিসার মোহাম্মদ সফর উদ্দিন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুলাউড়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আ স ম কামরুল ইসলাম ও উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ শরিফ উল ইসলাম, উপজেলা প্রানীসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ আছির উদ্দিন। অনুষ্টানে কৃষকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কৃষিজীবি সালাউদ্দিন। পরে প্রধান অতিথি উদ্বোধনীর প্রথম দিনে কুলাউড়া পৌরসভা ও ভুকশিমইল ইউনিয়নের ২০০ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বীজ ও সার বিতরন করেন। উল্লেখ্য, কুলাউড়া উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি সমপ্রসারন অধিদপ্তরের উদ্যোগে খরিফ-১/১৩’ মৌসুমে উপকারী আউশ প্রনোদনা বিনামূল্যে উক্ত প্র্যাকেজের আওতায় ১৩টি ইউনয়ন ও ১ টি পৌরসভা দুই হাজার তিনশত ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বীজ ও সার বিতরন করা হচ্ছে। প্রতি কৃষক ১ বিঘা উফলী আউশ ধান চাষের জন্য ৫ কেজি বীজ, ২০ কেজি ইউরিয়া, ১০ কেজি ডি.এফপি ও ১০ কেজি এমও পি সার অনুদান হিসাবে পাবেন। এ ছাড়া সেচ সহায়তা বাবদ ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে ৩শত টাকা পাবেন বলে কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে।