বুধবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মিলানে ইতালিয়ানদের আয়োজনে বৃহৎ ফ্যাস্টিবল ডেল ওরিয়েন্ট সম্পন্ন



মিলান থেকে সংবাদদাতা : ইতালির মিলানে ইতালিয়ানদের আয়োজনে সবচেয়ে বড় মেলা ফ্যাস্টিবল ডেল ওরিয়েন্ট সম্পন্ন হয়েছে.মিলানের সেগরাতের নবেগ্রয় ২৫ এপ্রিল থেকে ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত ৪ দিন ব্যাপী ৫০ টি দেশের প্রবাসীদের অংশগ্রহনে এই মেলা অনুষ্ঠিত হয়.বিভিন্ন দেশের সাংস্কৃতিক ও কৃষ্টি তুলে ধরার জন্য মেলার মঞ্চে বিশ্বের অনেক দেশ গুলোর সাথে বাংলাদেশের প্রবাসীরা ও এই মেলায় অংশগ্রহন করেন.মেলার মূল আকর্ষণের মধ্যে ইন্ডিয়ান গান ও নৃত্য, আরবীদের বেলি নৃত্য,চায়নার অপেরা সংগীত, কলকাতার নিজস্য কৃষ্টি,থাইল্যান্ড ও নেপালের নৃত্য.এই মেলায় এই মেলায় সাংস্কৃতিকে অংশগ্রহন করার সুযোগ করে দেন বাংলাদেশের সাতক্ষীরায় একটি এনজিও রিশিল্পী ডেভোলাফমেন্ট প্রজেক্ট এর কর্মকর্তা এনছো। মঞ্চে বাংলাদেশের কৃষ্টি তুলে ধরার জন্য ৩০ মিনিট সময় দেয়া হয়.মেলায় হাজার হাজার দর্শকের মাঝে বাংলাদেশের পরিচিতি করিয়ে দেন মেলার আয়োজকদের পক্ষে এনছো.মানিক রঞ্জন বড়ুয়া ও সেলিনা আক্তারের উপস্থাপনায় বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক পর্ব পরিবেশিত হয়.ময়না চলাত চলাত করে রে এই গানের সাথে নৃত্য পরিবেশন করে প্রবাসে বেড়ে উঠা শিশু শিল্পী ঋতুপর্না বড়ুয়া.সংগীত পরিবেশন করেন মানিক রঞ্জন বড়ুয়া,সুলতানা খান,নিলা বড়ুয়া,আছাজা অনিক,মিম ও চপল।
মেলায় অংশগ্রহনকারী দেশ গুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য- থাইল্যান্ড, তিউনেশিয়া,ভারত,পাকিস্তান,চাইনিজ,নেপাল,ভুটান,সুমালিয়া,ইজিপ্ট,মিশর,ব্রাজিলিয়ান,মরক্ষ,ইতালিয়ান প্রমুখ। এই মেলায় বিভিন্ন দেশের সাংস্কৃতিক ও কৃষ্টি তুলে ধরার পাশাপাশি নিজ নিজ দেশের পরিচিতি ও জনপ্রিয় শিল্প,স্থান গুলো তুলে ধরেন.এতো বৃহৎ মেলা মিলানে পূর্বে কখনো অনুষ্ঠিত হয়নি.এই মেলায় অংশগ্রহন ও মঞ্চে দেশের পক্ষে সাংস্কৃতিক পরিবেশন করতে পেরে নিজেদেরকে ধন্য মনে করেছেন প্রবাসী মিলানের শিল্পীরা.সেই সাথে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন মেলার আয়োজকদের কাছে বাংলাদেশকে এই মেলায় অংশগ্রহনের সুযোগ করে দেওয়ার জন্য।