বুধবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মিলানে মাদারীপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যন কে বিশাল সংবর্ধনা প্রদান



IMAG4306-1

নাজমুল হোসেন, মিলান থেকে : ইতালির মিলানে সফররত মাদারীপুরের সদর উপজেলা চেয়ারম্যান, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক পাভেলুর রহমান শফিক খান কে বিশাল সংবর্ধনা দিয়েছে মিলান লম্বারদিয়া আওয়ামিলিগ। ২৮ এপ্রিল রবিবার বিকাল ৬ টায় স্থানীয় হলরুমে আয়োজিত বাংলাদেশ আওয়ামিলিগ মিলান লম্বারদিয়ার সভাপতি শাহাদাত হোসেন সাহার সভাপতিত্বে, মিলান যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম জামান এর পরিচালনায় সংবর্ধনা অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সংবর্ধিত ব্যক্তি পাভেলুর রহমান শফিক খান।
অনুষ্টানের শুরুতেই সংবর্ধিত ব্যক্তি কে ফুলের তোড়া দিয়ে বরণ করেন মিলান লম্বারদিয়া আওয়ামিলিগ,স্বেচ্ছাসেবকলিগ,শ্রমিকলিগ,ভারেজ আওয়ামিলিগ ও আনকোনা আওয়ামিলিগ নেতৃবৃন্দ।
প্রধান অতিথির বক্তৈব্যে সংবর্ধিত ব্যক্তি বলেন-দীর্ঘদিন পর প্রবাসে এসে আমি আমার সকল প্রিয় ভাইদেরকে এক সাথে দেখতে পেরে খুব আনন্দিত.আপনাদের সহযোগিতা পেয়ে আজ আমি উপজেলা চেয়ারম্যান হয়েছি.প্রবাস থেকে আপনাদের দেওয়া রেমিটেন্স দেশের কাজে লাগছে। তিনি ইতালিতে বসবাসকারী মাদারীপুরের প্রবাসীদের পাশে সবসময় থাকবেন বলে আশ্বাস দেন। তিনি সকল প্রবাসী কে অনুরুধ করেন দলমত উপেক্ষা করে নিজ জেলার স্বার্থে একত্রিত থাকতে। তিনি অনুষ্টানে উপস্থিত প্রবাসীদের কাছে বর্তমান সরকারের আমলে মাদারীপুরের উন্নয়নের কিছুটা তত্ত্ব তুলে ধরেন। তিনি এই অনুষ্টানের আয়োজনের জন্য মিলান লম্বারদিয়া আওয়ামীলীগের সকল নেতা কর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান.
সংবর্ধনা অনুষ্টানের পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন শেখ সাইয়েদ আহমেদ। সভায়
বক্তৈব্য রাখেন- আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা আব্দুল হান্নান, প্রবীন রাজনীতিবিদ আকরাম হোসেন,আওয়ামিলিগ নেতা সৈয়দ জামান সম্রাট, ভারেজ বাংলাদেশ সমিতির সাবেক সভাপতি নুর মো মালেখ, আওয়ামী শ্রমিকলীগের সহ সভাপতি সিরাজ খালাসী, শ্রমিকলীগের সভাপতি মুজিবুর রহমান হাওলাদার,বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি হাজী শাহ আলম, স্বেচ্ছাসেবক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তোফায়েল আহমেদ তপু,আনকোরা আওয়ামীলীগের সাংঘটনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম নুর হোসেন, প্রেস ক্লাবের আহবায়ক কবির উদ্দিন আহমেদ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কাওসার হাওলাদার, ভারেজ আওয়ামীলীগের সভাপতি রিপন মুল্লা, ভারেজ আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ফিরুজ গাজী প্রমুখ।