সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ছাতক, দোয়ারা ও কোম্পানীগঞ্জে ৫ব্যক্তির অস্বাভাবিক মৃত্যু



ছাতক প্রতিনিধি : ছাতক, দোয়ারাবাজার ও কোম্পানীগঞ্জে ৫ব্যক্তির অস্বাভাবিক মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। ছাতকের জাউয়াবাজার ইউনিয়নের কাইস্তকোনা এলাকায় বুধবার সকালে মিনিবাসের চাপায় আব্দুর রহিম (৬০) নামের এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। যানাজায় অংশ নিতে এসে সড়ক পারাপারের সময় সিলেটগামী মিনিবাস (নং- সিলেট ব-১১-০০৫১) তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। সে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার আখতাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। বুধবার রাতে উপজেলার জাউয়াবাজার ইউনিয়নের বড়কাপন গ্রামের ফজর আলী (৩২)’র মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে তার লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরন করেছে পুলিশ। সে গ্রামের কলমদর আলীর পুত্র। পরিবারের লোকজনের দাবী গলায় ফাঁস লাগিয়ে সে আত্মহত্যা করেছে। দোয়ারাবাজারের প্রতাবপুর গ্রামের অগ্নিদগ্ধ আলী নূরের স্ত্রী সোনারা বেগম (৩০) বুধবার সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় মারা গেছে। ২৭ এপ্রিল তিনি নিজ ঘরের চুলার আগুনে অগ্নিদগ্ধ হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কোম্পানীগঞ্জের ভোলাগঞ্জ ১০নং এলাকায় বজ্রপাতে নিহত হয়েছে বলাই দাস (২৫)। বুধবার রাতে পাথর কোয়ারী এলাকায় বজ্রপাতে সে নিহত হয়। বলাই দাস ইছাকলস ইউনিয়নের বিষ্ণপুর গ্রামের হেমেন্দ্র দাসের পুত্র। বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গেছে কোম্পানীগঞ্জের দয়ার বাজারের ব্যবসায়ী আজিজুর রহমান তোতা মিয়া (৭৫)। সে পুরান বালুচর গ্রামের মৃত আহমদ আলীর পুত্র। বুধবার রাতে দোকানের সাটারের সাথে বিদ্যুতের তার জড়িয়ে গেলে তিনি সাটার খুলতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যান।