বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কুলাউড়ায় পূবালী ব্যাঙ্কের নিরাপত্তা প্রহরীর বিরুদ্ধে চেক জালিয়াতির অভিযোগ



কুলাউড়া প্রতিনিধি : পূবালী ব্যাংক লিমিটেড কুলাউড়া শাখার নিরাপত্তা প্রহরীর বিরুদ্ধে চেক জালিয়াতির মাধ্যমে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার ৪নং জয়চন্ডি ইউনিয়ন পরিষদের অন্তর্গত রংগিরকুল গ্রামের সাধারন অধিবাসী মৃত আকলু মিয়ার পুত্র মোঃ আবদুল মনাফ (এসবি হিসাব নং-১২৯২১০১১০৩৫৬১) লিখিতভাবে এই অভিযোগ করেন। অভিযোগপত্রে তিনি বলেন-প্রায়ই তিনি উক্ত শাখার নিরাপত্তা প্রহরী মোঃ শের আলীকে দিয়ে চেক লিখিয়ে ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করে থাকেন। গত ১৭ এপ্রিল একটি চেক লিখিয়ে ব্যাংক থেকে ১০ হাজার টাকা উত্তোলন করেন। ঐ সময় চেক বইটি নিরাপত্তা প্রহরীর হাতে রেখে যান। এই সুযোগে অভিযুক্ত নিরাপত্তা প্রহরী মোঃ শের আলী চেক বইয়ের শেষ দিক থেকে কৌশলে একটি পাতা সরিয়ে নেন। চেক বই নেয়ার সময় নিরাপত্তা প্রহরী আব্দুল মনাফের হিসাবে অবশিষ্ট অর্থের পরিমান জানতে চাইলে তিনি সরল বিশ্বাসে ৮০ হাজার টাকা রয়েছে বলে জানান। পরবর্তী সময়ে তিনি টাকা উত্তোলনের জন্য ব্যাঙ্কে এলে জানতে পারেন তার হিসাবে নির্ধারিত পরিমান টাকা নেই। তিনি আরও অভিযোগ করেন, তার চুরি যাওয়া চেক দিয়ে তার স্বাক্ষর জাল করে গত ২৫ এপ্রিল পূবালী ব্যাঙ্ক শমসেরনগর শাখা থেকে অভিযুক্ত নিরাপত্তা প্রহরীর সহযোগিতায় তার হিসাব থেকে অন-লাইনে ৫০ হাজার টাকা তুলে নেয়া হয়েছে। এই ব্যাপারে ক্ষতিগ্রস্থ দরিদ্র গ্রাহক মোঃ আব্দুল মনাফ সংশিষ্ট ব্যাংকের ব্যবস্থাপক বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ব্যাংকের ব্যবস্থাপকের সংগে যোগাযোগ করা হলে তিনি অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। অভিযুক্ত নিরাপত্তা প্রহরী মোঃ শের আলীর সংগে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, কর্তব্য পালন কালে তিনি অনেক গ্রাহকের চেক লিখে দেন। তবে চেক বই থেকে পাতা চুরির বিষয়টি অস্বীকার করেন। অভিযুক্ত নিরাপত্তা প্রহরীর বিরুদ্ধে এখনো কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি বলে জানা গেছে।