সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে অজ্ঞান পার্টির মহিলা সদস্যের কবলে লন্ডন প্রবাসী : স্বর্নালংকার, নগদ টাকা ও পাউন্ড লুট



পিন্টু দেবনাথ, কমলগঞ্জ : বাড়িতে গৃহিনীর কাজে যোগদান করে গভীর রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় লন্ডন প্রবাসী এক মহিলাসহ দুইজনকে অজ্ঞান করে স্বর্নালংকার, নগদ টাকা, পাউন্ড ও মোবাইল ফোন নিয়ে পালিয়ে গেছে। সকালে তৈরী মেডিসিনের গন্ধ শুনতে গিয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়েছে বাড়ির কেয়ার টেকার। এঘটনায় লন্ডন প্রসাবসী মহিলাসহ ৩ জনকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দিবাগত রাতে কমলগঞ্জ উপজেলার পতনঊষার ইউনিয়নের বৃন্দাবনপুর গ্রামে।
জানা যায়, বৃন্দাবনপুর গ্রামের আব্দুল হক চৌধুরী খসরু এর পরিবারে গত শুক্রবার একটি কাজের মেয়েকে নিয়োগ করা হয়। ঐ রাতেই বাড়ির লোকজন ঘুমিয়ে পড়ার পর সুযোগ বুঝে কাজের মেয়ে একটি চায়ের কাপে মেডিসিন তৈরী করে মুখে গন্ধ শুনিয়ে খসরুর মা লন্ডন প্রবাসী জাহানারা বেগম (৭০) ও তাদের বাড়িতে কেয়ার টেকার হিসাবে নিয়োজিত জামিলা বেগম (৫৫) কে অজ্ঞান করে ফেলে। আব্দুল হক চৌধুরী খসরু বলেন, তার এক ভাতিঝির বাড়িতে অনুমান ২৫ বছর বয়সের এক যুবতি কাজের জন্য আসে। গার্মেন্টস থেকে চাকুরীচ্যুত হয়ে কুমিল্লায় বাড়ি ও অসহায় বলে তাদের জানালে ঐ ভাতিঝির কথায় ঘরের কাজের জন্য রাখা হয়। গভীর রাতেই সে ঐ ঘটনা ঘটিয়ে তার মায়ের গলা ও হাতের স্বর্নের চেইন, নগদ কিছু টাকা, পাউন্ড, মূল্যবান কাপড় চোপড় ও ১টি মোবাইল ফোন নিয়ে পালিয়ে যায়। তবে কি পরিমান টাকা ও পাউন্ড তার মায়ের জ্ঞান না ফেরা পর্যন্ত বুঝা যাবে না। তিনি আরও বলেন, কাজের মেয়েটি যে চায়ের কাপে মেডিসিন তৈরী করেছে সকালে বাড়ির কেয়ার টেকার সুন্দর মিয়া (৩০) গন্ধ শুনতে গিয়ে সে নিজেও অজ্ঞান হয়ে গেছে। তিন জনকেই মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এ ব্যাপারে আব্দুল হক চৌধুরী থানায় কোন অভিযোগ দেননি।