শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে এক শিক্ষার্থী প্রেমের ফাঁদে : মোবাইলে নগ্ন কিপ : ৪ জন গ্রেফতার



কমলগঞ্জ প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় এসএসসি উত্তীর্ন এক শিক্ষার্থী প্রেমের ফাঁদে পড়ে সর্বস্ব হারিয়েছে। এমনকি মোবাইলে নগ্ন কিপ এর দৃশ্য ধারণকরছে। এ ঘটনার মুলহোতাসহ ৪ জনকে গতকাল বৃহস্পতিবার (৩০ মে) সকালে কমলগঞ্জ থানা পুলিশ এক অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করেছে।
জানা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের পাত্রখলা চা বাগান এলাকার চা শ্রমিক লিমা বেগম ও মৃত মিলন মিয়ার দুই মেয়ে এক ছেলের মধ্যে প্রথম কন্যা লাইলী বেগম (ছদ্দ নাম) (১৭) ভান্ডারীগাঁও উচ্চ বিদ্যালয় এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৩.৮৮ গ্রেড পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে। নবম শ্রেনীতে অধ্যয়নরত থাকাবস্থায় একই বাগানের পূর্ব লাইনের বাসিন্দা সল্টু দেবের ছেলে বাপ্পী দেব (২২) প্রেমে প্রস্তাব দিয়ে প্রতিনিয়ত হয়রানী করতো। এক পর্যায়ে বাপ্পির সাথে মেয়েটির প্রেমের সর্ম্পক গড়ে উঠে। এ ভাবে চলতে থাকে তাদের প্রেম। বাপ্পী গত টেষ্ট্র পরীা চলাকালীন অবস্থায় মেয়েটিকে খবর দিয়ে স্থানীয় অধিকারী ভৌমিকের বাসায় নিয়ে গিয়ে কয়েকজন বন্ধুর সহযোগীতায় প্রায় দুই ঘন্টা ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে এবং বন্ধু দের সহযোগীতায় নগ্ন ধর্ষনের দৃশ্য মোবাইলে ধারণ করে। মেয়েটি মোবাইলের ধারনের কথা বললে বাপ্পি তা অস্বীকার করে। মেয়েটি বাড়ীতে গিয়ে মাকে জানায়। মা বিষয়টি সমাজের কয়েকজনকে জানালে বাপ্পি মেয়েটির মাকে নগ্ন ভিডিও কিপটি বিভিন্ন মোবাইলে ছড়িয়ে দেয়। এলাকার উঠতি বয়সের যুবকদের মোবাইল ফোনে ধর্ষনের দৃশ্য ছুিড়য়ে পড়ায় অসহায় চা শ্রমিক পরিবারটি লোকলজ্জার কারণে স্থানীয় চেয়ারম্যানসহ পঞ্চায়েত প্রধানদের কাছে সুবিচার চান। দীর্ঘ দিন হলে কোন সুবিচার না পাওয়ায় বাধ্য হয়ে কমলগঞ্জ থানায় মামলা করার জন্য আশ্রয় নেন। প্রথমে পুলিশ মামলা নেয়নি। অবশেষে গত ২৯ মে বুধবার আইন সহায়ক কেন্দ্র আসুক শ্রীমঙ্গল এর সহায়তায় মামলা দায়ের করা হয়। যার নং ১৪, তাং ২৯ মে ২০১৩ইং। ঐদিন রাতেই কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নীহার রঞ্জন নাথ, সহকারী পুলিশ সুপার মোল্লা মোঃ শাহীন এর তত্ত্বাবধানে এএস আই মধুসুদন রায়ের নেতৃত্বে আসামীদের গ্রেফতার অভিযান পরিচালনা করে গতকাল বৃহস্পতিবার ৩০ মে সকাল ৭ টার দিকে পাত্রখোলা চা বাগান থেকে অভিযুক্ত ৪জনকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন বাপ্পী দেব, রাজু ভৌমিক, রামজিৎ কৈরী ও খোকন গোয়াল। এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নীহার রঞ্জন নাথ বলেন, আটকৃতদের থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। প্রয়োজনে তাদেরকে রিমান্ডে আনা হবে। অপর দিকে এ ঘটনার সাথে জড়িতরা আটক হলেও লাইলী বেগম (ছদ্দ নাম) এসএসসি পরীায় ভাল রেজাল্ট করলেও বখাটে যুবকের খপ্পরে পড়ে কেড়ে নিয়েছে তার আশাভরসা। কলেজে ভর্তি কিংবা লেখাপড়া অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। মেয়ের মা জানান, স্বামী মারা যাওয়ার পর পাত্রখলা চা বাগানে কাজ করে আমার ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়াসহ পরিবারে ভরন-পোষন চালিয়ে যাচ্ছি। যারা আমার মেয়ের এমন সর্বনাশ করেছে তাদের সুষ্টু বিচার দাবী করেন।