বুধবার, ১১ অগাস্ট ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Sex Cams

কমলগঞ্জে কাউন্সিলর পদে নানা-নাতি,ফুফু-ভাইঝি ও ২ ভাইয়ের লড়াই



download (2)

নিউজ ডেস্ক : আসন্ন কমলগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে ৫ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে নানা-নাতির মাঝে শুরু হয়েছে নির্বাচনী লড়াই। ৫নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর রমুজ মিয়ার প্রতিদ্বন্ধী হিসাবে মনোনয়ন জমা করে গণ সংযোগে ব্যস্ত রয়েছেন তার সম্পর্কে নাতি মোঃ ইয়াছিন মিয়া।
নির্বাচনী এলাকায় গণ সংযোগ চালানোর সময় কাউন্সিলর প্রার্থী মোঃ ইয়াছিন মিয়া বলেন, এলাকার যুব সমাজের মতামতের ভিত্তিতে তিনি প্রার্থী হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্ধী হচ্ছেন মায়ের মামা বর্তমান কাউন্সিলর রমুজ মিয়া। অপর দিকে নানা বর্তমান কাউন্সিলর রমুজ মিয়াও প্রচারনা চালাচ্ছেন। ভোটযুদ্ধে কে জয়ী হন তা আগামী দিন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

কমলগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে ২নং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ফুফু-ভাইঝি। কমলগঞ্জ পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের আলেপুর গ্রামের মৃত মজনু মিয়ার মেয়ে মোসাঃ আরেফা আক্তার ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডের বর্তমান মহিলা কাউন্সিলর। অপর দিকে একই গ্রামের বাসিন্দা সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে এই প্রথম প্রার্থী হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেমেছেন আরেফা আক্তারের ভাই মরহুম মকবুল মিয়ার মেয়ে মোসাম্মৎ এনি বেগম। তারা উভয়েই ৫নং ওয়ার্ডের আলেপুর গ্রামের বাসিন্দা। একই গ্রামের এবং একই পদে দুই আত্মীয়ের প্রতিদ্বন্দ্বিতার কারণে তাদের নিকট আত্মীয়দের মধ্যে এখনও প্রকাশ্য বিরোধ দেখা না দিলেও তারা পড়েছেন দুটানায়। কাকে নিয়ে নির্বাচনী মাঠে নামবেন বা নির্বাচিত করবেন এ নিয়ে বিপাকে দুই পরিবারের সদস্যসহ আত্মীয়-স্বজন। আলাপকালে মোসাঃ আরেফা আক্তার বলেন, ভোটারদের কাছে দেয়া ওয়াদা গত পাঁচ বছরে আমি পূরণ করেছি। তাই আমি আশাবাদী ভোটাররা তাদের কাছে গ্রহণযোগ্য প্রার্থীকেই নির্বাচিত করবেন। অপর প্রার্থী মোসাঃ এনি বেগম বলেন, আমি নতুন ভোটার ও স্থানীয় প্রবীণ ভোটারদের ডাকে সাড়া দিতে গিয়ে প্রার্থী হয়েছি। আমার বিশ্বাস তারাই আমাকে বিজয়ী করবেন। এছাড়া এ ব্লকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মোসাঃ নার্গিস আক্তার ও মোসাঃ আয়েশা সিদ্দিকী।

কমলগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলরের পদে ভাই-ভাইয়ের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে যাচ্ছেন। মনোনয়নপত্র বাছাই শেষে কাউন্সিলর পদে দুই ভাইয়ের মনোনয়নপত্র চূডান্ত হয়েছে। নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, কমলগঞ্জ পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন উপজেলা যুবলীগের সভাপতি বর্তমান পৌর কাউন্সিলর প্যানেল মেয়র আনোয়ার হোসেন। একই পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন তার চাচাতো বড় ভাই সাবেক নির্যাতিত ছাত্রলীগ নেতা মহিউদ্দিন। তবে দুই ভাইয়ের ঘনিষ্ঠজনরা বলেন, দুই ভাই মনোনয়নপত্র জমা দিলেও এখনও প্রত্যাহারের সময় রয়েছে। স্থানীয় ভোটাররা জানান, বর্তমান কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন মেয়র পদে প্রচারণা চালিয়ে দলের কাছে দলীয় মনোনয়ন চান। এ সুযোগে কাউন্সিলর হিসেবে ভোটের মাঠে নামেন সাবেক ছাত্রনেতা মহিউদ্দিন। কিন্তু আওয়ামী লীগ মেয়র পদে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ জুয়েল আহমদকে দলীয় প্রার্থী ঘোষণার পর আনোয়ার হোসেন আবার কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ফিরে যান। আলাপকালে আনোয়ার হোসেন বলেন, আমার জনপ্রিয়তা আছে বলেই গত দুই নির্বাচনে নির্বাচিত হয়েছিলাম। এলাকার মানুষ এবারও আমাকে চাইছেন। তাই আমি মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছি। বড় ভাই মহিউদ্দিন বলেন, এলাকাবাসী আমাকে প্রার্থী হিসেবে চায়। এলাকাবাসীর ভালোবাসায় প্রার্থী হয়ে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছি। দুই ভাই ছাড়াও এ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন আহমেদুর রহমান বুলু।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত