বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সিলেট সদরের ৮ ইউনিয়নে নির্বাচন চলছে



11
নিউজ ডেস্ক :: সিলেটে শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে শুরু হয়েছে ইউপি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। সকাল ৮টা থেকে নারী ও পুরুষ ভোটাররা দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট প্রদান করছেন। কোথাও অপ্রীতিকর ঘটনার কোন খবর পাওয়া যায়নি।
আজ মঙ্গলবার ইউপি নির্বাচনের প্রথম ধাপে সিলেট সদরের ৮টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ৮ ইউনিয়নের ৯৫ টি ভোটকেন্দ্রে ১ লাখ ৬হাজার ১শ’ ৫১ পুরুষ ও ১লাখ ২ হাজার ২শ’ ১৯ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। দলীয় প্রতীকে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় আওয়ামী লী, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, জমিয়তে ইসলামসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ও স্বতন্ত্র ৪০ চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
এরমধ্যে জালালাবাদ ইউনিয়নে ৫ জন, হাটখোলা ইউনিয়নে ৭জন, খাদিমনগরে ৫জন, খাদিমপাড়ায় ৮জন, টুলটিকরে ৪জন, টুকেরবাজারে ২জন, মোগলাগাঁও ইউনিয়নে ৪জন ও কান্দিগাঁও ইউনিয়নে ৫জন প্রার্থী রয়েছেন।
এছাড়া সাধারণ সদস্য প্রার্থীর সংখ্যা ৩শ’ ৫৯ জন। এরমধ্যে জালালাবাদ ইউনিয়নে ৩৬ জন সাধারণ সদস্য প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। হাটখোলা ইউনিয়নে ৩৮জন, খাদিমনগরে ৫৯জন, খাদিমপাড়ায় ৬১জন, টুলটিকরে ৩৪জন, টুকেরবাজারে ৪১জন, মোগলগাঁও ইউনিয়নে ৩৯জন ও কান্দিগাঁও ইউনিয়নে ৫১জন প্রার্থী রয়েছেন। ৮ ইউনিয়নের ২৪টি সংরক্ষিত ওযার্ডে মহিলা সদস্য প্রার্থী রয়েছেন ৯১জন।
সিলেট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর মাহবুবুল আলম জানিয়েছেন, শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে ৯৫ ভোটকেন্দ্রের একযোগে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। ভোটারদের উপস্থিতিও ভাল। কোথাও অপ্রীতিকর ঘটনার খরচ পাওয়া যায়নি।
তিনি আরও জানান, নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করতে আমরা সবধরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। পর্যাপ্ত পুলিশ সদস্য, অস্ত্রধারি আনসার ও নিরস্ত্র আনসার ছাড়াও ইন্সপেক্টরের নেতৃত্বে ৯টি স্ট্রাইকিং ফোর্স, ২৬টি মোবাইল টিম, ৮জন ম্যাজিস্ট্রেট, এবং বিজিবির ২ প্লাটুন ও র‌্যাবের ৩টি স্ট্রাইকিং ফোর্স দায়িত্ব পালন করছে।
সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি, মিডিয়া) মুহাম্মদ রহমত উল্লাহ জানিয়েছেন, নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্নের জন্য নজিরবিহীন নিরাপত্তা বেষ্টনি গড়ে তোলা হয়েছে। প্রতি ৩ কেন্দ্রে ১টি মোবাইল টিম, প্রতি ইউনিয়নে ১জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের পুলিশ কাজ করছে। ৮ ইউনিয়নের ৯৫ কেন্দ্রের মধ্যে ৪৫টি গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে নিরাপত্তায় বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।