বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নাজিমসহ সব ব্লগার হত্যার পূর্ণ তদন্ত চায় যুক্তরাষ্ট্র



3

প্রবাস ডেস্ক : বাংলাদেশে ব্লগার হত্যার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। গত সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এ আহ্বান জানিয়েছেন ডেপুটি মুখপাত্র মার্ক সি. টোনার।

তিনি নিহতের পরিবারকে সহায়তা দিতে এবং বিষয়টিকে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে নিতেও আহ্বান জানিয়েছেন।

বাংলাদেশের আভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে আপনার অভিমত কী? আপনি কি উদ্বিগ্ন? এক সাংবাদিকের এমন প্রশ্নের জবাবে মার্ক টোনার বলেন, ‘অবশ্যই, গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। ব্লগার হত্যার তদন্তে এফবিআই সহযোগিতা করছে। আমরা বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে একসঙ্গে কাজ করছি।’

‘আমরা দেখেছি সাম্প্রতিক ঘটনাগুলো। এর নেপথ্যে আছে আল কায়েদা। এ সব হামলা ভয়াবহ’, বলেন টোনার। তিনি আরও বলেন, ‘আমরা এমন ভয়াবহ হামলার নিন্দা জানাই। এটা উদ্বেগজনক একটি ঘটনা। এর আগেও আমরা এমন ঘটনা দেখেছি।’

যারা এমন অত্যাসন্ন বিপদের ঝুঁকিতে রয়েছেন, ‘ডিপার্টমেন্ট অব হোমল্যান্ড সিকিউরিটি তাদের মানবিক প্যারোল বিবেচনা করতে পারে।’ তবে এ পর্যন্ত কতজন যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয়ের জন্য আবেদন করেছেন তা তিনি উল্লেখ করেননি।

কিছুদিন আগে রাজধানীর পুরান ঢাকায় নাজিমুদ্দিন সামাদ নামের জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্রকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। নিহত নাজিমুদ্দিন অনলাইনে ধর্মীয় বিষয় ও উগ্রপন্থার বিরুদ্ধে লিখতেন বলে জানা গেছে।

বাংলাদেশে ২০১৩ সাল থেকে বেশ কয়েকজন ব্লগারকে তাদের লেখালেখির কারণে হত্যা করা হয়েছে। এদের মধ্যে রয়েছেন অভিজিৎ রায়, রাজীব হায়দার শোভন, অনন্ত বিজয় দাশ, নিলয় নীল, ওয়াশিকুর রহমান বাবু, জগৎজ্যোতি তালুকদার প্রমুখ।

নিহত নাজিমউদ্দিন সামাদ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের স্নাতকোত্তর শ্রেণির সান্ধ্যকালীন বিভাগের ছাত্র ছিলেন। তার বাড়ি সিলেটে। ফেসবুক পাতায় তিনি নিজেকে সিলেট জেলা বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব পরিষদের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে উল্লেখ করেছিলেন।