বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ইলিশ ছাড়া নববর্ষ উদযাপন করবে সিলেট



443

নিউজ ডেস্ক :: ইলিশ ছাড়াই বাংলা নববর্ষ উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিলেট জেলা প্রশাসন। এ কারণে পহেলা বৈশাখ উৎসব উদযাপনে তাদের খাবার উপকরণে পান্তা ভাত থাকলেও থাকছে না ইলিশ।

প্রজনন মৌসুমে জাটকা ও মা ইলিশ রক্ষায় বুধবার (১৩ এপ্রিল) এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বেলা সোয়া ২টায় সিলেট জেলা প্রশাসক জয়নাল আবেদীন মোবাইলফোনে বিষয়টি জানান।

তিনি বলেন, প্রতিবছর পান্তা-ইলিশ দিয়ে পহেলা বৈশাখ তথা বাংলা নববর্ষ উদযাপন হয়। কিন্তু এবার পহেলা বৈশাখের সময় বাংলাদেশের জাতীয় মাছ ইলিশের প্রজনন মৌসুম। এই সময়ে মা ইলিশ ডিম পাড়ে। তাই আমাদের সবাই এই মৌসুমে ইলিশ খাওয়া থেকে বিরত থাকলে ইলিশ মাছ বাড়বে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই খাদ্য তালিকা থেকে ইলিশ বাদ দিয়েছেন। সিলেট জেলা প্রশাসনও খাদ্য তালিকা থেকে ইলিশ বাদ দিয়েছে।

জেলা প্রশাসনের এমন সিদ্ধান্তে সংহতি প্রকাশ করছেন সিলেটের সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বরা।

এ সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়ায় সামাজিক মাধ্যমে সিলেট প্রেসক্লাব ফাউন্ডেশনের সভাপতি আল আজাদ লিখেছেন, ‘প্রতিবছর পয়লা বৈশাখে সিলেটের জেলা প্রশাসকের বাসায় পান্তা-ইলিশের নিমন্ত্রণ পেতাম। তবে নিমন্ত্রণ রক্ষা করা অর্থাৎ যাওয়া বা খাওয়া হয়নি কখনো। কারণ বিষয়টির সঙ্গে একমত নই। অবশ্য এবার নিমন্ত্রণ পাইনি-পাওয়ার কথাও নয়। কারণ খোদ প্রধানমন্ত্রীই নববর্ষের খাদ্য তালিকা থেকে ইলিশ বাদ দিয়ে দিয়েছেন।’

তিনি আরও লিখেছেন, ‘পণ্ডিতদের মতে, প্রায় তিন দশক আগে দেশে নববর্ষে পান্তা-ইলিশ খাওয়া শুরু হয়। তখন ছিল স্বৈরাচারের দণ্ডকাল। সুতরাং এই ক্রিয়াকর্ম যে বাংলাদেশের রূপালি সম্পদ ধ্বংস আর বাঙালির আবহমান ঐতিহ্য বিলুপ্ত করার গভীর চক্রান্ত ছিল, সেটা প্রমাণিত সত্য; কিন্তু এটা উপলব্ধি করতে আসলে অনেক দেরি হয়ে গেছে।’