সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ঘুরে আসুন হুলু লাঙ্গাতের জলপ্রপাত থেকে



full_821667120_1465756184

নিউজ ডেস্ক: মালয়েশিয়ার মূল শহর কেএলসিসি থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে হুলু লাঙ্গাত এলাকায় একটি জলপ্রপাত আছে। জায়গাটি পুরোপুরি পর্যটনকেন্দ্র। তাই সারা বছরই এখানে পর্যটকদের ভিড় আছে। বিশেষ করে মালয়েশিয়ার সাপ্তাহিক বন্ধের দিন রোববার। সেদিন অনেকেই জলপ্রপাতে শরীর ভেজাতে চলে যান সেখানে। স্থানীয় ভাষায় এই জলপ্রপাত পর্যটনকেন্দ্রের নাম এয়ার তেজুন সুমগাই গাবাই।

চারদিকটা পাহাড়ে ঘেরা। নানা রকমের শত শত গাছগাছালি। এই জায়গাটিকে জঙ্গলও বলা যায়। এখানকার বাতাস প্রচণ্ড ঠান্ডা। বাতাসের সঙ্গে উড়ে আসা গুঁড়িগুঁড়ি পানি শরীরকে স্পর্শ করে। জলপ্রপাতের মূল দৃশ্য কাছ থেকে দেখতে হলে একটি সিঁড়ি বেয়ে ওপরের দিকে উঠতে হবে।

সিঁড়ি বেয়ে ওপরের দিকে ওঠার সময় বিশ্রাম নেয়ার জন্য কিছু পর পর কাঠের ঘর বানিয়ে রাখা হয়েছে। কাঠের ঘরগুলো দেখতে অনেক সুন্দর। বসার জন্য ঘরের ভেতরে চেয়ার-টেবিল রাখা আছে। ঘরের চারদিকটা খোলা। পাহাড়ের ওপর থেকে জলপ্রপাতের পানি গড়িয়ে পড়ছে। অসংখ্য পর্যটক গোসল করছেন।

প্রচণ্ড ঠান্ডা পানিতে ভিজিয়ে নিতে পারেন শরীর। পানিতে নামার পর সব ক্লান্তি যেন নিমেষেই দূর হয়ে যাবে। প্রবাসে ব্যস্ততার জীবনে অশান্ত মনকে শান্ত করার এটাই মোক্ষম উপায়। সিঁড়ি বেয়ে ওপরের দিকে ওঠা কষ্ট, কিন্তু নিচের দিকে নামতে গেলে কোনো কষ্ট হয় না।

স্থানীয় রেস্তোরাঁর ভেতরে বিশাল বড় অ্যাকুরিয়ামের মধ্যে বন্দী থাকা মাছ থেকে নিজের পছন্দ মতো মাছ বেছে নিতে পারবেন। সি ফুড রেস্তোরাঁগুলোতে অর্ডার করার পর রান্না করা হয়।