রবিবার, ২ অক্টোবর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ইইউ নেতাদের মুখোমুখি ক্যামেরন



2016_06_28_10_45_20_zxvTvBpl0LHupQ9EcIZhSNnuTlTUWy_original

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: গণভোটের পর প্রথমবারের মতো ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) নেতাদের মুখোমুখি হচ্ছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন। ব্রাসেলসে ইইউ সম্মেলনের আগি তিনি নেতাদের সঙ্গে ব্রেক্সিট ভোট বাস্তবায়নের বিষয় নিয়ে আলাপ করবেন বলে বিবিসি জানিয়েছে।

মঙ্গলবার ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টাস্ক ও ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট জ্য ক্লুদ ইয়ুঙ্কারের সঙ্গে সাক্ষাতের পর ক্যামেরন ইইউ নেতাদের সঙ্গে নৈশভোজে অংশ নেবেন। ব্রাসেলসে ইইউ সম্মেলনকে সামনে রেখে ক্যামেরন এই সাক্ষাৎ করবেন। সেখানে ব্রেক্সিট ইস্যু নিয়ে আলোচনা হবে।

তবে জার্মান, ফ্রান্স ও ইতালির নেতারা সোমবার বলেছেন, যুক্তরাজ্য ইইউ থেকে বেরিয়ে না যাওয়া পর্যন্ত তারা এ বিষয়ে ব্রিটেনের সঙ্গে কোনো অনানুষ্ঠানিক বা আনুষ্ঠানিক আলোচনায় বসবে না।

এদিকে সোমবার ক্যামেরন বলেন, যুক্তরাজ্যের ইইউ ছাড়ার প্রাথমিক কাজগুলো করতে সরকারের একটি বিশেষ ইউনিট গঠন করা হয়েছে।

গণভোটে দেশের মানুষ ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পক্ষে রায় দিলেও ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন বলেছেন, এ নিয়ে আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া শুরু করার জন্য তাঁর দেশ এখনো প্রস্তুত নয়। কিন্তু যুক্তরাজ্য আনুষ্ঠানিকভাবে জোট ছাড়ার প্রস্তাব না দেওয়া পর্যন্ত এগোতেও রাজি নন ইইউর নেতারা।

গত বৃহস্পতিবারের গণভোটের পর গতকাল সোমবার প্রথম মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী ক্যামেরন বলেন, ইইউ থেকে বের হয়ে যাওয়ার আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া শুরু করতে তাঁরা প্রস্তুত নন। তিনি বলেন, ‘সেটি শুরু করার আগে আমাদের ঠিক করা দরকার, ইইউয়ের সঙ্গে আমাদের সম্পর্কের ধরনটা কেমন হবে।’

ইতিমধ্যেই নিজের পদত্যাগ ঘোষণাকারী ক্যামেরন বলেন, তাঁর স্থলাভিষিক্ত যিনি হবেন, তিনিই এ সম্পর্কের বিষয়টি নির্ধারণ করবেন।

এ ছাড়া ইইউতে থাকার পক্ষে লোকজন দ্বিতীয় গণভোটের যে দাবি তুলেছেন, তা নাকচ করে দেন ক্যামেরন।

বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যের ঐতিহাসিক গণভোটে ইইউ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পক্ষে মত দেন ৫২ শতাংশ ব্রিটিশ নাগরিক। শুক্রবার এ ফলাফল প্রকাশের পর দেশটির পুঁজিবাজারে ব্যাপক ধস নামে। দেশটির অর্থমন্ত্রী জর্জ অসবর্ন গতকাল পুঁজিবাজার শান্ত রাখার প্রয়াসে বাজারে লেনদেন শুরুর আগেই বেশ সকালে একটি বিবৃতি দেন। তিনি বলেন, যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলা করার মতো অর্থনৈতিক সামর্থ্য যুক্তরাজ্যের রয়েছে।