শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শীর্ষ ধনীর বাড়ি আজ নিলামে কেন!



13895405_1731031183814379_148349993224642335_n

নিউজ ডেস্ক :: জিএমজি এয়ারলাইন্সের নামে সোনালী ব্যাংক থেকে নেয়া ঋণের টাকা পরিশোধ না করায় আজ ৩ আগস্ট নিলামে উঠছিল বাংলাদেশের শীর্ষ ধনীব্যক্তি সালমান এফ রহমানের বাড়ি। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ব্যাংকটির লোকাল অফিস ৩৫-৪২ মতিঝিলে এ নিলাম অনুষ্ঠিত হত। কিন্তু হাইকোর্টের ধারস্ত হয়ে টাকা পরিশোধে তিন মাসের সময় নিয়েছে দেশের শীর্ষ এই ধনী। বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি মো. সেলিমের বেঞ্চ গত সোমবার এই স্থগিতাদেশ দেয়।
চলতি বছরের ৩০ মে পর্যন্ত জিএমজির কাছে ব্যাংকের মোট পাওনা ২২৮ কোটি ১৯ লাখ টাকা। ২০০৬ সালে এ ঋণ নেয়া হয়। ওই সময়ে ঋণের পরিমাণ ছিল ১৬৫ কোটি টাকা। পরবর্তীকালে সুদ ও ঋণের স্থিতি বেড়ে যায়।
এদিকে তবে দেশের শীর্ষ এই ধনী ব্যক্তির ঋণখেলাপি ও বাড়ি নিলাম ঘটনায় ব্যপক আলোচনা সমালোচনা হয়েছে বিভিন্ন অঙ্গনে। সমালোচকদের তীরের মধ্যে ছিল “দেশের শীর্ষ পুঁজিপতিরা যদি ঋণখেলাপি করে ব্যাংক দেউলিয়ার প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। তাহলে অচিরেই তা অপ-সংস্কৃতিতে পরিণত হবে!”
প্রসঙ্গত, বিষয়টি নিয়ে ব্যাংকের নিলাম বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, “ব্যাংকের টাকা পরিশোধ না করায় জিএমজি এয়ারলাইন্সের চেয়ারম্যান সালমান এফ রহমান, পিতা মরহুম ফজলুর রহমান, মাতা মরহুমা সৈয়দা ফাতিনা রহমানের বন্ধকি সম্পত্তি নিলামের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ধানমণ্ডির ২ নম্বর রোডের ১৭ নম্বর প্লটের (নতুন) ১ বিঘা (৩৩ শতাংশ) জমি ও তার ওপরের ভবন এবং নির্মাণাদিসহ নিলামে তোলা হবে। আগামী ৩ আগস্ট বুধবার এ নিলাম অনুষ্ঠিত হবে। অর্থঋণ আদালত আইন-২০০৩ এর ১২ (৩)-এর বিধান অনুযায়ী এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়”।
উল্লেখ, সালমান এফ রহমান আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান। তিনি আইএফআইসি ব্যাংকের একজন উদ্যোক্তা পরিচালক। তিনি বাংলাদেশের শীর্ষ ব্যবসায়ীদের মধ্যে একজন। তিনি বেক্সিমকোর প্রতিষ্ঠাতা এবং ভাইস চেয়ারম্যান।