বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

স্কুলে যেতে কলাগাছের ভেলা



Bakshiganj-Bg20160815112212

নিউজ ডেস্ক :: বন্যার কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার আবার খুলতে শুরু করেছে জামালপুরের বিভিন্ন এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

কিন্তু বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন সড়ক ও সেতু ভেঙে যাওয়ায় কোমলমতি প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের অনেকেই ঝুঁকি নিয়ে স্কুলে যাতায়াত করছে।

চলতি বন্যায় বকশীগঞ্জের বিভিন্ন এলাকার বেশ কয়েকটি সেতু বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় যাতায়াতে দেখা দিয়েছে চরম ভোগান্তি।

ফলে এলাকার তিনটি স্কুলের শিক্ষার্থীদের স্কুলে যাতায়াতের একমাত্র উপায় কলাগাছের ভেলা।

স্থানীয় সূত্র জানায়, রাস্তা ও সেতু ভেঙে যাওয়ার কারণে উপজেলার দশানী নদীবেষ্টিত মেরুরচর ইউনিয়নের ঝালেরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং খেয়ারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও খেয়ারচর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কয়েকশ শিক্ষার্থীকে নিত্য কলাগাছের ভেলায় করে স্কুলে যেতে হয়।

বকশীগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মেহেদী হাসান টিটু জানান, বন্যার পানির প্রবল স্রোতে বকশীগঞ্জ-মেরুরচর সড়কের খেয়াররচর গ্রামে একটি ২৫ মিটার দৈর্ঘ্যের সেতু ভেঙে গেছে।

এছাড়া চলতি বন্যায় বকশীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ৮০ কিলোমিটার কাচাঁ পাকা সড়ক ও একটি সেতু বিধ্বস্ত হয়েছে।

স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সাবেক তথ্যমন্ত্রী আবুল কালাম আজাদের নিজ গ্রামে যাওয়ার একমাত্র রাস্তার সেতুটি ভেঙে গেছে।

এসব বিষয়ে বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএন) আবু হাসান সিদ্দিক জানান, বন্যায় সেতুসহ উপজেলার বিভিন্ন সড়ক বিধ্বস্ত হয়েছে। ক্ষয়ক্ষতির তালিকা হচ্ছে, অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সংস্কার করা হবে।